Messi was banned for 3 months

আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে তিন মাসের জন্য নির্বাসিত হলেন লিওনেল মেসি

খেলাধুলা ফুটবল সর্বশেষ সংবাদ

লিওনেল মেসিকে 50 হাজার ডলার জরিমানা এবং তিন মাসের জন্য আর্জেন্টিনা দলের হয়ে খেলা থেকে নির্বাসিত করা হলো। এর কারণ নাকি তিনি কোপা আমেরিকা 2019 এ নিয়ম লংঘন করেছিলেন।

এক নজরে

1.মেসি এবং আর্জেন্টিনা দল কনমেবল এর দেয়া এই নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আপিল করতে পারেন

2. এই নির্বাসন জারি থাকলে মেসি তিনটি বন্ধুত্বপূর্ণ ম্যাচ খেলতে পারবেন না

3.গত মাসে কোপা আমেরিকা 2019 এর মেসি মেডেল সেরিমণিতে যাননি ।

ফুটবলের পরিচালক সংস্থা কনমেবল লিওনেল মেসিকে কনমেবল আর্জেন্টিনার হয়ে আন্তর্জাতিক খেলা থেকে নির্বাসিত করলো তিন মাসের জন্য। কারণ তিনি নাকি কোপা আমেরিকা 2019 এ নিয়ম লংঘন করেছিলেন। দক্ষিণ আমেরিকার এই সংস্থাটি শুক্রবার জানিয়েছে যে তারা এই আইকনিক খেলোয়াড় কে 50 হাজার ডলার জরিমানা করেছেন তার বিরূপ মন্তব্যের জন্য। আর মেসি এই মন্তব্যটি করেছিলেন আর্জেন্টিনা যখন জুলাই মাসে চিলির বিরুদ্ধে 2-1 গোলে জিতে যায় তৃতীয় স্থান নির্ধারণ এর খেলায়।

মেসি এবং আর্জেন্টিনা দল এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারেন। নির্বাসন জারি থাকলে এই স্ট্রাইকারকে চারটি বন্ধুত্বপূর্ণ ম্যাচ খেলা থেকে বিরত থাকতে হবে।

এই নির্বাসন চালু থাকলে 32 বছর বয়সী এই সুপারস্টার আর্জেন্টিনার হয়ে সেপ্টেম্বরে চিলি এবং মেক্সিকোর বিরুদ্ধে খেলতে পারবেন না। অধিকন্তু তিনি অক্টোবরের দুটো ম্যাচও জার্মানির সাথে খেলতে পারবেন না।

যদিও এখনও পর্যন্ত মেসি অথবা আর্জেন্টিনা দলের কর্মকর্তাদের মধ্যে কেউই কনমেবলের সিদ্ধান্ত নিয়ে কোন রকম মন্তব্য করেননি।

এছাড়াও মেসি ইতিমধ্যেই দক্ষিণ আমেরিকার বিশ্বকাপে প্রথম খেলায় নির্বাসিত। এর কারণ তিনি অযৌক্তিকভাবে লাল কার্ড পেয়েছিলেন চিলির বিপক্ষে খেলার সময়।

এই নিয়ে মেসি তার ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বারের মতো মাঠ থেকে বের হতে বাধ্য হন। আর এখানে মিডফিল্ডার গ্যারি মেডেল এর সঙ্গে সংঘাত লাগায় এটি ঘটে।

মেসি প্রতিবাদ জানিয়ে কোপা আমেরিকার মেডেল সেরিমণি বর্জন করেন। পরবর্তীকালে তিনি আর্জেন্টিনাকে বলেন,”এই দুর্নীতিতে অংশ নেয়া উচিত নয়।”

আর্জেন্টিনার এই খেলোয়াড় আরো বলেন ,”এই খেলা গুলো ব্রাজিলের জেতার জন্য সাজানো হয়েছিল।

ইতিমধ্যেই মেসি কোপা আমেরিকার রেফারিদের কে অভিযোগ করেছেন আর্জেন্টিনার 2-0 গোলে ব্রাজিলের বিপক্ষে হেরে যাওয়ার জন্য। আর এটি ছিল কোপা আমেরিকার সেমিফাইনাল খেলার মধ্যে একটি।

তাকে জিজ্ঞাসা করা হয়,” তিনি কি তার এই নির্বাসনের জন্য ভীত?” তিনি উত্তরে বলেন, “যা সত্য তার প্রকাশ হওয়া উচিত।” যদিও পরবর্তীকালে তিনি কনমেবলের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করে একটি চিঠি লিখেছেন।

ইংরেজিতে পড়তে এখানে ক্লিক করুন।

1 thought on “আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে তিন মাসের জন্য নির্বাসিত হলেন লিওনেল মেসি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *