সংসার সামলেও পুষ্প লতা সফল আইএএস, সকলকে জানালেন নিজের জীবনের লড়াই – Pushp Lata IAS story

চাকরির প্রতিযোগিতা আজ তুঙ্গে। সাফল্যের শীর্ষ স্থানে পৌঁছানোর জন্য ক্রমাগত লড়াই করে চলেছেন প্রত্যেকটি মানুষ। প্রতিযোগিতা যেখানে চরম সেখানে সফল হবার জন্য চূড়ান্ত পরিশ্রম করতে হবে, একথা আমাদের সকলেরই জানা। প্রতিযোগিতার নাম যদি হয় আইএএস, তাহলে কতখানি পরিশ্রম করতে হবে তা হয়তো আমাদের কল্পনার অতীত। সবথেকে বড় কথা প্রতিযোগিতা যদি হয় একটি মেয়ের, তাহলে তার পরিশ্রম যেনো শতগুণ বেড়ে যায়। (Success Story : 2017 IAS topper Pushp Lata shares her struggle)

প্রত্যেকটি মেয়েকে একটা সময়ের পর বিয়ে দিয়ে দেবার জন্য উঠেপড়ে লাগেন তাদের বাবা-মা। প্রত্যেকটি মেয়েকে এখনো শুনতে হয় যে, পড়াশোনা করে কি হবে। শশুর বাড়ি যাবার পর সংসার সামলানোর পরেও যে সমস্ত মেয়েরা নিজের স্বপ্ন দেখার চেষ্টা করে, তাদের লড়াই আরও কিছুটা এগিয়ে থাকে অন্যদের থেকে। আর এমনই একজন লড়াকু মেয়ের গল্প আপনাদের বলব, যার গল্প শুনলে একটু হলেও আপনি জীবনে এগিয়ে চলার প্রেরণা পাবেন। (Pushp Lata IAS home address – Haryana)

হরিয়ানা রেওয়ারি খুশবুরা নামের ছোট্ট একটি গ্রামের বাসিন্দা হলেন পুষ্প লতা। গ্রামের পাশের স্কুলে তার পড়াশোনা শুরু হয়েছিল। বাড়িতে সমস্ত সুযোগ সুবিধা না থাকার ফলে এক আত্মীয়ের বাড়িতে থেকে পড়াশোনা চালিয়ে যান তিনি। এমবিএ শেষ করে প্রাইভেট কোম্পানিতে চাকরি নেন। ২০১১ সালে বিয়ে হয়ে যায় পুষ্প লতার।

বিয়ের পর তিনি ভেবেছিলেন আইএএস পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নেবেন। সেই পথ খুব একটা মসৃণ ছিল না। তবে পাশে সব সময় পেয়েছিলেন তার স্বামীকে। পেশায় চিকিৎসক তার স্বামী সবসময় সহযোগিতা করতেন স্ত্রী কে।

তবে পাঁচ বছর পড়াশোনা জগত থেকে দূরে থাকার পর আরো একবার পড়াশুনোর জগতে ফিরে যাওয়া খুব একটা সহজ ব্যাপার ছিল না। তার মধ্যে ছিল আই এস পরীক্ষার মতো পরীক্ষা। বজ্র কঠিন মানসিকতা নিয়ে প্রস্তুতি শুরু করে দেন অবশেষে পুষ্প লতা। শশুর বাড়ির লোকজনকে পাশে নিয়ে প্রয়োজনমতো পড়াশুনা চালিয়ে অবশেষে স্বপ্ন দেখা শুরু করেছিলেন তিনি।

ছেলেকে স্কুলে পাঠানোর আগে ঘণ্টা দুয়েক তিনি পড়তেন। ছেলে স্কুল থেকে ফিরে এলে তাকে সঙ্গ দিয়ে বাড়ির কাজকর্ম সেরে রাখতেন। সন্ধ্যেবেলা সময় পেলেই শুরু করে দিতেন পড়া। ছেলেও কিন্তু কখনো পড়াশোনার সময় মাকে বিরক্ত করেনি। এককথায় শ্বশুর বাড়ির সকলকে পাশে পেয়েছিলেন পুষ্প লতা। ২০১৭ সালে গোটা দেশের সকল তালিকায় তার র্যাঙ্ক ছিল ৮০ নম্বর।

1. পুষ্প লতা তার জীবনের অভিজ্ঞতা থেকে সকলকে পরামর্শ দিয়েছেন যে, কোচিং এর সুবিধা না থাকলেও ঘাবড়ে যাবেন না। ইন্টারনেটে দৌলোতে আজ হাতের কাছে পেয়ে যাবেন সবকিছু।

2. উপযুক্ত প্ল্যানিং আগেভাগে সেরে নিতে হবে। মন থেকে চাইতে হবে যে আমি পারবো, তাহলেই দেখবেন যে সবকিছু সম্ভব।

3. সুযোগ পেলেই বই নিয়ে বসে পড়বেন। জীবনে প্রচুর সমস্যা থাকবে কিন্তু নিজের লক্ষ্যে থাকতে হবে অবিচল।

2017 ias topper pushp lata shares her struggle
সংসার সামলেও পুষ্প লতা সফল আইএএস, সকলকে জানালেন নিজের জীবনের লড়াই – Pushp Lata IAS story