মাওবাদী অন্তর্দ্বন্দ্বে নিহত ৫ জঙ্গি নেতা

সম্প্রতি ছত্রিশগড়ে গত দুই সপ্তাহে খুন হয়েছেন ৫ জন মাওবাদী জঙ্গি নেতা। এই জঙ্গি নেতাদের প্রত্যেকের মাথার দাম ধার্য ছিল তিন লক্ষ টাকা। পুলিশের দাবি অনুযায়ী, সম্প্রতি বিজাপুর জেলায় কয়েকজন সাধারণ গ্রামবাসীকে হত্যা করার জন্য দলের মধ্যে বিবাদ শুরু হয়। সেই বিবাদের জেরে সম্ভবত ওই পাঁচ জন জঙ্গি নেতাকে খুন করা হয়েছে। চলতি মাসে গোড়াতেই খুন করা হয়েছিল শীর্ষস্থানীয় মাওবাদী নেতা মদিয়াম ভিজ্জা কে (365 Reporter Bangla News from Bijapur, Chhattisgarh : 5 jongi leaders killed in Maoist infighting. Last month, militant leader Modiyam Vijja was killed )।

ইন্সপেক্টর জেনারেল সুন্দর রাজ জানিয়েছেন যে, নিহত পাঁচ জঙ্গি নেতা হলেন, জনবাহিনীর প্লাটুন সেকশনের কম্যান্ডার সন্দীপ ওরফে বুধরাম, মাওবাদী জনচেতনা স্কুল ইনচার্জ লাখু হেমলা, দণ্ডকারণ্য আদিবাসী কিষান মজদুর সংগঠনের প্রধান সন্তোষ, জনতনা সরকার দলের প্রধান দশরু মাণ্ডবী এবং মিলিশিয়া প্লাটুন কমান্ডার কমলু পুনেম (According to Inspector General Sundarraj, they are Sandip alias Budhram, the controller of Janmilitia platoon section, Lakhu Hemla, Maoists jantana school in-charge, Santosh, head of Dandakaranya Adivasi Kisan Mazdoor Sangathan, Dasru Mandavi, the leader of janatana sarkar group and Kamlu Punem, Militia platoon head)।

maoist group
মাওবাদী সংগঠন

তাদের মধ্যে চারজন গঙ্গালুর আঞ্চলিক কমিটিতে সক্রিয় নেতা ছিলেন।

সুন্দরাজ জানিয়েছেন যে, বেশ কিছু মাস ধরে মাওবাদীদের প্রবীণ এবং নবীন জঙ্গিদের মধ্যে বিবাদের কথা শোনা যায় (nobin vs probin jongi fight)। তাদের মধ্যে মনোমালিন্যের উৎপত্তি হয় স্থানীয় গ্রামবাসী দের উপর নিগ্রহ করা নিয়ে। সম্প্রতি বিজাপুরে গ্রামবাসীদের হত্যা করা নিয়ে সেই বিবাদ আবার মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে।

পুলিশের দাবি অনুযায়ী, এই ঘটনা প্রবাহের দিকে সতর্ক দৃষ্টি রেখেছে নিরাপত্তা বাহিনী। মাওবাদীদের এই বিভাগের খবর পেয়ে তারা তাদের মত রণকৌশল সাজানোর প্রক্রিয়া শুরু করে দিয়েছিল।