স্বপ্নের অপমৃত্যু নিউটাউনের প্রেমিক-প্রেমিকার

কলকাতাতে এক মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে গেল। একে স্বপ্নের অপমৃত্যু আখ্যা দিলে ভুল বলা হবে না। সম্প্রতি নিউটাউনে এক দুর্ঘটনা ঘটে। আর এই দুর্ঘটনায় প্রান হারান প্রেমিক-প্রেমিকা যুগল। জানা গিয়েছে আসছে বছর দুজনের বিয়ে হওয়ার কথাবার্তা ঠিক হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু আচমকা দুর্ঘটনায় দুটি প্রাণ কেড়ে নিলো (365 Reporter Bangla News from New Town: accidents takes away the life of a young couple in Kolkata)।

জানা গিয়েছে দুজন সল্টলেক থেকে স্কুটিতে যাত্রা শুরু করেছিলেন। তাদের যাওয়ার কথা ছিল চিনার পার্ক অভিমুখে। তবে যাওয়ার পথে বিশ্ব বাংলা গেট এর নিচে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটে যায় (The couple are going to Chinar Park, Kolkata from Salt Lake. But they are caught in an accident beside Biswa Bangla Gate, Kolkata)। তাদেরকে তড়িঘড়ি বিধান নগর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় (They are taken to the Bidhannagar Sub Divisional Hospital )। কিন্তু সেখানে ডাক্তাররা প্রেমিক-প্রেমিকা যুগলকে পরীক্ষা করার পর বলেন যে তারা আমাদের ছেড়ে চলে গিয়েছে।

traffic jam in Kolkata
কলকাতার ট্রাফিক জ্যাম (ফটো ক্রেডিটঃ পিন্টারেস্ট)

যে যুবকটি মারা গিয়েছেন তার নাম দীপায়ন মুখার্জি। তিনি একটি আইটি সংস্থায় কর্মরত ছিলেন। একই সঙ্গে, তিনি বরাহনগর স্পোটিং ক্লাবের ক্রিকেট টিমের অধিনায়ক (Dipayan Mukherjee- an IT employee and captain of Baranagar Sporting Club)।

অপরদিকে, মেয়েটির নাম মেধা পাল। তিনিও একটি আইটি সংস্থায় কর্মরত ছিলেন (Medha Pal- an IT employee)। যুবকের বাসস্থান বরাহনগর এবং যুবতীর বাসস্থান বিরাটি তে (The boy and girl live in Baranagar and Birati respectively)। তবে তরুণী ব্যাঙ্গালুরুতে কাজ করতেন। আর এই তথ্যটি পাওয়া গেল পরিবারের তরফ থেকে। আর লকডাউন চালু হয়ে যাওয়ায় তিনি বাড়িতে ফিরে এসেছিলেন। আর বাড়ি থেকেই কাজ করতেন সে সংস্থায়।

পুলিশের সূত্র থেকে জানা গেল, সল্টলেক হতে চিনার পার্ক অভিমুখে যাতায়াতের সময় বিশ্ববাংলা গেটের সামনে এই অ্যাক্সিডেন্ট ঘটে যায়। পুলিশ সঙ্গে সঙ্গে তাদেরকে অ্যাম্বুলেন্সে করে বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। কিন্তু ভাগ্যের পরিহাসে দুজনের কাউকেই বাঁচানো সম্ভব হয়নি। পুলিশ সূত্র থেকে জানা গেল, তাদের স্কুটির পেছনে একটি লরি আসছিল। আর ওই লরিটি স্কুটির পেছন দিক হতে ধাক্কা দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। আর স্কুটি থেকে দুজন ছিটকে রাস্তায় পড়ে যান।

এই মুহূর্তে লরি চালক পলাতক। নিউটাউন পুলিশের তরফ থেকে এই লরির তল্লাশি করা হচ্ছে। পরিবার সূত্রে জানা গেল, আসছে বছর দুজনের বিয়ে ঠিক ঠাক হয়ে গিয়েছিল। এমনকি প্রতিটি শনিবার দুজনে বাইরে ঘুরতে যেতেন। একসাথে খাওয়া দাওয়া করতেন তারা। এদিনও মূলত একটু ঘোরা এবং খাওয়া-দাওয়া করার জন্য তারা বাইরে বেরিয়ে ছিলেন। তবে বাড়িতে আসার সময় এই মর্মান্তিক অ্যাক্সিডেন্টের শিকার হন দুজনই (Young couple died in Kolkata at an accident)।