Durnibar Meenakshi Marriage : জাদু কন্ঠের অধিকারী দুর্নিবার বিয়ে করতে চলেছেন

তাকে দেখে এক নিমেষে পাগল হয়ে গিয়েছিল বহু মেয়ে, ঈশ্বর প্রদত্ত গলায় গান গাইলে যেনো মনে হতো হেমন্ত মুখোপাধ্যায় গান গাইছেন। কথা বলছি দুর্নিবারের। সকলের মন জয় করে ফেললেও যখন সবাই জানতে পারলেন যে দুর্নিবার আগে থেকে বিবাহিত, তখন কিছুটা হলেও দমে গিয়েছিলেন সুন্দরীরা। ২০১৭ সালে বহুদিনের বান্ধবী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়ের আইনি প্রথা মেনে বিয়ে করেছিলেন দুর্নিবার। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে হতে চলেছে তাদের সামাজিক মতে বিবাহ। (Tollywood Upcoming Marriage : Artist Durnibar Saha is going to marry Meenakshi soon. His voice is like Hemanta Mukherjee. So, beautiful girls sundori meyera get disheartened to hear this news)

বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে খাবারের মেনু, সবকিছু নিয়েই বিখ্যাত গায়ক দুর্নিবার আলোচনা করলেন জী ২৪ ঘন্টার সঙ্গে। বিয়ে নিয়ে দুর্নিবার জানান, “আমরা বহু দিন একসঙ্গে কাজ করেছি। আমাদের মনে হয়েছিল যে একে অপরের জন্যই আমরা রয়েছি। লিভ ইন করার আগেই রেজিস্ট করে দেখেছিলাম আমরা। লকডাউন এর জন্য আমাদের বিয়ে পিছিয়ে যায়। লকডাউনে আমরা ঠিক করেছি সবকিছু ঠিক হয়ে গেলে ২০২১ এই আমরা বিয়ে করে নেব।”

বিয়ের পরিকল্পনা সম্পর্কে গায়ক দুর্নিবার জানান, “সমস্ত পরিকল্পনা আমি আর মীনাক্ষী মিলে করি। কিভাবে কি হবে সবকিছুই ঠিক করেছে মীনাক্ষী। এসব বিষয়ে ও অনেক বেশি দক্ষ। আমি সব সময় ওর পাশে আছি। তবে বর্তমান পরিস্থিতি মেনেই আমরা বিয়ে করবো। খুব বেশি লোকজনকে আমন্ত্রণ জানাতে পারবো না। আগে থেকে কিছু বন্ধুদের জানিয়ে দিয়েছি যে, বিয়েতে তাদের নিমন্ত্রণ করতে পারবোনা। তবে প্রথা মেনেই আমরা বিয়ে করবো।”

SInger Durnibar Saha and Menakshi Mukherjee in adesi look
পাজামা পাঞ্জাবিতে শিল্পী দুর্নিবার সাহা এবং বউ মীনাক্ষী মুখার্জি

বিয়ের অনুষ্ঠানের দিন সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করতে দুর্নিবার জানান, “ফেব্রুয়ারি মাসের কুড়ি তারিখ হবে আইবুড়ো ভাত। সেই দিনই মেহেন্দি এবং সঙ্গীত হবে। তা ঠিক পরের দিন হবে বিয়ে। এই দুইদিন শুধুমাত্র বন্ধুরা থাকবে। রিসেপশনের দিন হবে ২৩ তারিখ। এই দিন উপস্থিত থাকবেন সমস্ত পরিবার থেকে আত্মীয়-স্বজন। সমস্যা অনুষ্ঠান হবে রাজারহাটের স্বপ্ন ভরে। আমি ধুতি পাঞ্জাবি পড়বো এবং মীনাক্ষী লাল বেনারসি পড়বে। রিসেপশনে আমি টাকসিদো এবং মীনাক্ষী পড়বে ডিজাইনার শাড়ি।” (Durnibar Saha Menakshi Aiburo bhat anusthan)

খাবারের মেনু নিয়ে ধন্যবাদ জানিয়েছেন, “বেশি কিছু খাবারের আয়োজন করিনি। তবে যেটুকু থাকবে তা গরম পরিবেশন করা হবে। জিরা রাইস থেকে মটন চিংড়ি সবকিছুই থাকবে মেনুতে।”

মধুচন্দ্রিমা নিয়ে গায়ক জানিয়েছেন, “আমরা আগে থেকে কখনো বেড়াতে যাবার দিন ঠিক করি না। আগের দিন ঠিক করে পরের দিন বেরিয়ে যাই। এক্ষেত্রে আমরা একি কাজ করব। তবে হয়তো আমরা পাহাড় অথবা জঙ্গলে বেড়াতে যাব। এই মুহূর্তে বিদেশে যাওয়া সম্ভব নয়।” (Durnibar Saha Meenakshi Mukherjee Modhu chandrima)