শিক্ষক নিয়োগের দাবি নিয়ে আন্দোলনকারীরা নামলো রাস্তায়, তৈরি হলো এক অস্বাভাবিক পরিস্থিতি

উচ্চ প্রাথমিক স্তরের শিক্ষক নিয়োগের জন্য আন্দোলন করে চাকরি প্রার্থীরা। তারা শিক্ষক নিয়োগের দাবি তুলে আন্দোলন করে মঙ্গলবার। আন্দোলনকারীরা সল্টলেকের এসএসসি ভবনের সম্মুখে আন্দোলনের দাবিতে বিক্ষোভ করেন। (Aspiring Upper primary teacher candidates strike for recruitment)

কিন্তু এই আন্দোলন আটকাতে পুলিশ নামে এবং তারা আন্দোলনকারীদের সেখান থেকে উঠিয়ে শিয়ালদা স্টেশনের দিকে সরিয়ে দেয়, ফলে শিয়ালদা স্টেশন এলাকায় অনেকক্ষণ ধরে পথ আটকে রাখে আন্দোলনকারীরা। সেখানে সঙ্গে আন্দোলনকারীদের ধস্তাধস্তি চলে।

পুলিশ সূত্রে খবর পাওয়া গেছে যে, আন্দোলনকারীদের সঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রী মিটিং করেছে। পুলিশ সূত্রে এ খবরও পাওয়া যায় যে, শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে মিটিং হওয়ার পর আন্দোলনকারীরা তাদের আন্দোলন তুলে নেবে। কিন্তু আন্দোলনকারীদের তরফ থেকে জানানো হয় যে, এই সমস্ত কথাগুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা।

আন্দোলনকারীদের মধ্যে একজন জানান যে, শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে তাদের কথা হয়েছে। আন্দোলনকারীরা জানায় যে, শিক্ষা মন্ত্রী তাদের জানিয়েছে কোর্টে এই ব্যাপারে কেস চলছে, এই কেসে যতক্ষণ না রায় বেরচ্ছে ততক্ষণ তাদের পক্ষে কিছু করা সম্ভব নয়।

কিন্তু আন্দোলনকারীদের মধ্যে একজন জানান, এইরকম কোনো কেস কোর্টে লিস্ট করা হয়নি, সরকার এবং কোর্ট কেউই তাদের সাহায্য করছে না। তাদের জীবনের ভবিষ্যতের সাথে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে বলেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন আন্দোলনকারীরা। আপাতত আন্দোলনকারীদের বিক্ষোভ চলবে বলেই তারা জানিয়েছে। আন্দোলনকারীদের বিকাশ ভবন অভিযান করতে বাধা দেয় পুলিশ।

শিক্ষক পদে নিয়োগের জন্য চাকরি প্রার্থীরা তাদের যে বিক্ষোভ চালাচ্ছে ,সেটা কতদিন পর্যন্ত চালিয়ে রাখা সম্ভব হবে, সেটাই এখন বড় প্রশ্ন। এই বিক্ষোভের ফলে সরকার কতটা তাদের সাহায্য করবে সেটাই এখন দেখার বিষয়।

Aspiring Upper primary teacher candidates strike for recruitment
শিক্ষক নিয়োগের দাবি নিয়ে আন্দোলনকারীরা নামলো রাস্তায়, তৈরি হলো এক অস্বাভাবিক পরিস্থিতি (প্রতীকী ফটো)