ডর্টমুন্ডের ফিটনেস কোচ হলেন বিশ্বের সেক্সিয়েস্ট অ্যাথলিট

করোনা পরিস্থিতিতে সারা দেশজুড়ে সমস্ত ধরনের খেলার অনুশীলন বন্ধ ছিল। তবে পরিস্থিতি একটু সামালে আসতেই বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন প্রান্তের ফুটবলের অনুশীলন ইতিমধ্যে চালু হয়ে গিয়েছে। জানা গেছে ইউরোপ তথা অনেক দেশের একাধিক ফুটবল ক্লাব ইতিমধ্যে তাদের অনুশীলন সম্পূর্ণরূপে শুরু করে দিয়েছে। এর আগে করোনা পরিস্থিতিতে বেশ কিছু মাস গৃহবন্দী ছিল সকলে, এরপর অনুশীলনে ফিরলে সঠিক মনোবলের দরকার তার জন্য চাই সঠিক কোচের। কারণ আদর্শ কোচই পারে একমাত্র দলের প্লেয়ারদের সঠিকভাবে মনোবল ফেরাতে অনুশীলনের জন্য।

ফুটবল খেলায় প্লেয়ারদের ফিটনেসটি অত্যন্ত ভাবে জরুরি একটি অঙ্গ। সবাই জানে যে দলের প্লেয়ার যত ফিট থাকবে সেই দল ততো দুরন্ত গতিতে মাঠে পারফর্ম করতে পারবে (365 Reporter Bangla News : beautiful Alicia Schmidt becomes the new fitness coach of Dortmund Football Club)।

তাই দলের প্লেয়ারদের যথাযথ ফিটনেসের কথা ভেবে এবং সঠিক অনুশীলন করানোর জন্য জার্মান বুন্দেশলিগার ক্লাব ‘বরুশিয়া ডর্টমুন্ড’ তাদের দলে কোচ হিসেবে নিযুক্ত করল জার্মান মহিলা অ্যাথলিট “অ্যালিসা স্মিডিট”-কে। ২১ বছর বয়সী এই স্মিডিট ইউরোপীয় অ্যাথলেটিক চ্যাম্পিয়নশিপে ২০১৭ সালে রুপো জিতেছিল এবং তাকে বিশ্বের সেক্সিয়েস্ট অ্যাথলিট বলে মনে করা হয়।

worlds sexiest athlete is the fitness coach of Dortmund club
বিশ্বের সেক্সিয়েস্ট অ্যাথলিট অ্যালিসা স্মিডিট (ফটো ক্রেডিটঃ ইনস্টাগ্রাম)

শুধু তার রুপই নয় তার যথাযথ নির্দেশনা পেলে দলের প্লেয়ারদের মনোবলের সাথে সাথে অনুশীলনের প্রতি আগ্রহ আরো বেশি প্রকাশ পাবে বলে মনে করেছেন কর্তৃপক্ষ (World’s sexiest athlete Alicia Schmidt is the fitness coach of German Borussia Dortmund club)।

সম্প্রতি স্মিডিট তার ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে একটি ভিডিও পোস্ট করেন যাতে দেখা গেছে সে দলের বিশেষ কিছু প্লেয়ারদের সাথে অনুশীলনে ব্যস্ত। এমনকি শুধু তাই নয়, জার্মান দলের ডিফেন্ডার ম্যাট হুমেলসকেও ৪০০ মিটার দৌড়ে অনায়াসে হারিয়ে দিয়েছেন স্মিডিট।

নতুন কোচের তত্ত্বাবধানে দল যেরকম ভাবে অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছে তাতে আশা করা যাচ্ছে আগামী দিনের ফুটবল লীগে তার ঝলক আমরা সকলেই দেখতে পাবো। ইনস্টাগ্রাম খ্যাত স্মিডিটের আজ পর্যন্ত এক মিলিয়নেরও বেশি ফলোয়ার। সে প্রতিনিয়ত তার দলের সাথে অনুশীলনের কথা ভাগ করে নিচ্ছেন তার ফ্যানদের সাথে।