চিনের নয়া ষড়যন্ত্র, এবার লিপুলেখে মিসাইল মোতায়েন নিয়ে চাঞ্চল্য সীমান্তে

সম্প্রতি স্যাটেলাইটে ধরা পরল চিনের নতুন ষড়যন্ত্র। এবার লিপুলেখে মিসাইল মোতায়েন করছে চিনা সেনা (China Soldiers Set Missile In The Lipulekh Pass )। চিন আর নেপালের সঙ্গে ভারতের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ইতিমধ্যে আঁচ লেগেছে চিনের ভারতীয় ভূখণ্ডে প্রবেশ করা নিয়ে। যদিও চিন দুই দেশের সামনে শান্তির বার্তাই দিয়ে চলেছে। কিন্তু অন্য দিক থেকে কূটনৈতিক বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করে চলেছে। সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, সম্প্রতি মিসাইল মোতায়েন করার ঘটনা ধরা পড়েছে স্যাটেলাইটে।

লিপুলেখ নিয়ে এর পূর্বেই ভারত ও নেপালের মধ্যে বিবাদ বেঁধেছিল। নেপাল লিপুলেখকে নিজেদের বলে দাবি করেছিল নতুন মানচিত্রে।নেপাল ওপেনসোর্স ইন্টেলিজেন্স ডেট্রেস্ফা, স্যাটেলাইট ছবি দেখিয়েছে, লিপুলেখের পাশে ট্রাই জংশন এরিয়ায় চিন সেনা মোতায়েন‌ই করেনি, সেখানে মিসাইল মোতায়েন করার নির্মাণ কাজ‌ও শুরু করেছে। ডেট্রেস্ফা রিপোর্ট অনুযায়ী এই এলাকায় ১০০ কিমির মধ্যে চিনা সেনাদের দেখা গেছে। মানস সরোবরের কাছেও চিনা সেনাদের লক্ষ্য করা গেছে। এবং ২০২০ মে মাস থেকে সেখানে তারা ঘাঁটি গড়েছে।

লিপুলেখ ভারত, চিন ও নেপালের সীমান্তবর্তী এলাকা। কয়েক মাস ধরেই এই এলাকাকে নিয়ে বিতর্ক বারবার সংবাদের শিরোনামে উঠে এসেছে। সম্প্রতি চিন সেনা মোতায়েনের কাজ করে চলেছে সেখানে। বর্তমানে এক হাজারেরও বেশি সেনা রয়েছে। ভারত মানস সরোবর যাত্রার জন্য লিপুলেখ থেকে নতুন রাস্তা তৈরি করেছিল।

এবারে,এই এলাকায় ভারতের ৮০ কিমি রাস্তা বানানোর পর নেপাল তা নিয়ে আপত্তি জানায়। তারপর থেকেই এই জায়গা সংবাদের শিরোনামে এই স্থান। এরপর নেপাল তাদের নিজেদের মতো একটি মানচিত্র প্রকাশ করে লিপুলেখ, কালাপানি লিম্পিয়াধুরাকে নিজেদের এলাকা বলে দাবি করায় আগুনে ঘি পড়ে। সম্প্রতি এই মিসাইল মোতায়েনের ঘটনা নতুন করে চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি করেছে ভারত সীমান্তে।