মাঝরাতে দুষ্কৃতীরা ঘরে ঢুকে মা-মেয়েকে আঘাত, মৃত্যু ১৯ বছরের মেয়েটির

Cooch Behar Murder News : এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহারের বকশির হাট থানা সংলগ্ন এলাকা কোদালির এক নম্বর জিপির তাঁতীপাড়ায়। গভীর রাতে দুষ্কৃতীরা ঘরে ঢুকে হামলা চালালো মা এবং মেয়ের উপর। ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হামলা চালালো তাদের ওপর। এইরকম একটি মর্মান্তিক খবর যখন বসিরহাট থানার পুলিশের কাছে পৌঁছায় ঘটনাস্থলে সেখানে উপস্থিত হয় তারা এবং তারপরেই তুফানগঞ্জ মহকুমার সরকারি হাসপাতালে তাদের নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। Some dacoits enter home and injures mom and daughter and 19 years girl spot dead in Kodali Tatipara, Bakshirhat thana, Tufanganj, Cooch Behar)

যখন চিকিৎসার জন্য তাদের নিয়ে যাওয়া হয় সেই সময়ে হাসপাতালে চিকিৎসকরা সেই ১৯ বছরের মেয়েটিকে মৃত বলেন। ওই মৃত তরুনীর নাম হল অঙ্কিতা সরকার। মৃত অঙ্কিতার মা সান্তনা সরকারকে কোচবিহার মহারাজা জিতেন্দ্র মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে। খবর সূত্রে জানা গেছে যে সান্তনা সরকারকে অস্ত্রোপচার করা হবে। (Doctor declares the 19 years old girl as dead in Maharaja Jitendra Medical College and Hospital, Coochbehar)

আপাতত অঙ্কিতার মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। স্থানীয় যে সমস্ত বাসিন্দারা তারা বলেন যে, রাত দশটার সময় তারা চিৎকার চেঁচামেচি শুনেই যে যার বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসে এবং তারা যখন সেই অঙ্কিতা এবং তার মায়ের ঘরে যায় তখন দেখে যে মা এবং মেয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। (Ankita Sarkar Death. Her mother name – Santana Sarkar)

এর পরে তারা থানায় খবর দেয়। তবে অঙ্কিতার বাবা এখনো পর্যন্ত নিখোঁজ। একটি মর্মান্তিক ঘটনার সঙ্গে কারা জড়িত আছে সে ব্যাপারে তদন্ত চালানো হচ্ছে। তবে এই ধরনের একটি মর্মান্তিক ঘটনার জন্য গোটা অঞ্চলের উত্তেজনা শুরু হয়েছে।

খবর সূত্রে জানা গেছে যে, কিছুদিন ধরে একটি মামলা চলছিল পোকসো আইনের ধারা নিয়ে এবং এই মামলাটি মৃত অঙ্কিতা সরকারের মা করেছিল। কিন্তু মামলায় যে অভিযুক্ত সে জামিনে এখন বাইরে রয়েছে তবে এখনো পর্যন্ত সে নিরুদ্দেশ আছে।