জনপ্রিয় রিপোর্টারের মৃত্যুতে শোকের ছায়া সংবাদ মহলে – Journalist Soham Mallick Death and Mayukh Ranjan Ghosh Injured News

বছর একটু অভিশপ্ত বছর ছিল সকলের কাছে। সমস্ত মানুষের আশা ভরসা শেষ হয়ে যাচ্ছিল করোনা সংক্রমনের জন্য। যেন থেমে গিয়েছিল গোটা পৃথিবী। আমাদের সকলেরই আশা ছিল নতুন বছর আসলে সবকিছু হয়তো ঠিক হয়ে যাবে, কিন্তু নতুন বছর আসতে না আসতেই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটলো এবং সেখানে মারা গেল বিখ্যাত রিপোর্টার। নেমে এলো সাংবাদিক মহলে শোকের ছায়া। (Kolkata Accident News : Famous Journalist Soham Mallick killed and Mayukh Ranjan Ghosh badly injured in Lords More, Kolkata, West Bengal bike accident)

কলকাতার বুকে বাইক দুর্ঘটনা হল সাংবাদিক ময়ূখ রঞ্জন এবং সোহম বেশ পরিচিত সকলের কাছে। সোহম সাংবাদিকের কাজ অনেক দিন ধরেই করছেন। বৃহস্পতিবার যখন মাঝ রাত সেই সময় বাইক দুর্ঘটনাটি ঘটে কলকাতার লডস মোড়ে। জানা গেছে যে, রাত তিনটের সময় বাইক নিয়ে তাদের বাড়িতে ফিরছিল এবং সেই সময়ই গাছের সঙ্গে বাইকটিকে ধাক্কা লাগে এবং বাইকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। এই ঘটনাটি কয়েকজন লক্ষ্য করেন যারা হলেন সুইগীর কর্মী।

এরপর ওই সাংবাদিকদের হাসপাতালে নিয়ে যায় তারা। কিন্তু যখন হাসপাতালে সোহম এবং ময়ূখকে নিয়ে যাওয়া হয় সাথে সাথেই হাসপাতালে তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় সোহম এর মৃত্যুর খবর। ময়ূরকে রাখা হয়েছে আইসিসিইউতে। দু’জনকেই আহত অবস্থায় নিয়ে যাওয়া হয়েছিল এসএসকেএমে।

প্রথম দিকে ময়ূরকে যখন এসএসকেএম এ নিয়ে যাওয়া হয় সেই সময় তার অবস্থার অবনতি হতে দেখে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় মল্লিক বাজার নিউরো সাইন্স হাসপাতালে। বেশ গুরুতর আঘাত লেগেছে মাথায় তার। হাসপাতাল সূত্রে খবর পাওয়া গেছে যে ময়ূখের অবস্থা বেশ আশঙ্কাজনক – এমনকি তার একটা চোখ নষ্ট হয়ে যেতে পারে বলেও জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

আরো পড়ুন, রং কালো হওয়ায় অপমানিত হতে হয়েছিলো ত্রিনয়নীর অভিনেত্রী শ্রুতিকে।

খবর সূত্রে জানা গেছে যে আগের দিন রাত্রে ময়ূখ সোহমের বাড়িতে গিয়েছিল এবং সেইখান থেকে গিয়েছিল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন অধ্যাপক কল্যাণ লাহিড়ীর কাছে এবং সেখানেই তারা কিছু কাজ মিটিয়ে নিয়ে তিনটে, চারটে নাগাদ ফিরছিল এবং হঠাৎই সেখানে বলরাম মিষ্টান্ন ভান্ডার দোকানটির কাছে এসে দুর্ঘটনাটি হয়। এই বিষয়টিতে তদন্তে নেমেছে লেক থানার পুলিশ।