ক্রিকেট

বউ নাতাশাকে ডিভোর্স দিলেন হার্দিক পান্ডিয়া!

অবশেষে সবার সামনে চলে এলো সেই চরম দুঃসংবাদ! বেশ কিছুদিন ধরে সামাজিক গণমাধ্যমে বউ নাতাশা স্তানোকোভিচ এবং ক্রিকেটার হার্দিক পান্ডিয়ার মধ্যে চরম দূরত্বের সৃষ্টি হয়েছে। গত চৌঠা মার্চ নাতাশার বার্থডেতে ও সোশ্যাল মিডিয়াতে কোনরকম শুভেচ্ছা দেননি হার্দিক। আর তাদের যুগলবন্দী সর্বশেষ আমরা দেখতে পেয়েছিলাম এই বছর ভ্যালেন্টাইনস ডে। তারপর থেকে কিন্তু দুজনকে কখনোই একসাথে দেখা যায়নি। (Hardik Pandya Natasha Stankovic divorce rumour)

সবাই বলাবলি করছে যে এই সারবিয়ান বইয়ের সঙ্গে ডিভোর্স হতে চলেছে ক্রিকেটারের। এমনকি এক গোপন সূত্রমতে জানা গেল যে এই অভিনেত্রী নাকি হার্দিকের মোট সম্পত্তির ৭০ শতাংশ দাবি করেছেন। তিনি নাকি এর কমে কোনভাবেই রাজি হচ্ছেন না।

এ প্রসঙ্গে আপনাদেরকে বলে রাখি বর্তমানে হার্দিকের মোট ধন-সম্পত্তির পরিমাণ দেড়শ কোটি টাকারও কিছু বেশি। আর এ ৭০ শতাংশ অর্থাৎ ১০৫ কোটি টাকার সম্পত্তি দাবি করে ফেলেছেন নাতাশা! এমনকি, কিছু লোকজন বলাবলি করছে যে বিয়ের অল্প কিছুদিনের মধ্যেই নাকি হার্দিক বুঝে গিয়েছিলেন যে নাতাশার সঙ্গে ঘর করা দুঃসাধ্য! কিন্তু ভালোবেসে নাকি প্রথমেই সবকিছু মেনে নিয়েছিলেন!

মূলত ২০২০ সালে লকডাউনের মধ্যে নাতাসা সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন হার্দিক। তখন কিন্তু নাতাশা অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় ছিলেন। এই অভিনেত্রী সেরকম পপুলার কেউ ছিলেন না। তিনি কয়েকটা আইটেম সঙ্গে ডান্স করেন এবং কিছু হিন্দি reality শো করেন। তবে মূলত এই ক্রিকেটারের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার পরই খবরের শিরোনামে উঠে আসেন।

বিয়ের পর একটা ইন্টারভিউতে হার্দিক জানান যে বিয়ের পর তার বউয়ের মধ্যে ভীষণ পরিবর্তন চলে এসেছে। তিনি নাকি এখন খুব ঠান্ডা মাথায় পরিস্থিতি সামাল দিতে শিখেছেন। আর তার ধৈর্য অনেক গুন বেড়ে গিয়েছে। তাই হার্দিক মনে করছেন যে ওর সঙ্গে ঘর করতে গেলে তাকেও প্রচন্ড ধৈর্য রাখতে হবে।

আর এই কথাগুলো কিন্তু বেশ মজা করেই হার্দিক বলেছিলেন। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে কিন্তু পরিস্থিতি পুরো ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরে গিয়েছে। তাহলে কি দুজনের মধ্যে সত্যিকারের সম্পর্কে ফাটল ধরে গিয়েছে? তা পরিষ্কার জানা কিন্তু একমাত্র সময়ের অপেক্ষা।

Surajit Joarder

৩৬৫ রিপোর্টার বাংলা ওয়েবসাইট এর অ্যাডমিন। আমি বিনোদন সম্পর্কিত টপিক ভীষণ ভালোবাসি। তাই আমি মেইনলি মুভি, ওয়েব সিরিজ, সিরিয়াল নিয়ে পোস্ট লিখে থাকি।