ঝিনাইদহ গৃহবধূকে কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা

বাংলাদেশের ঝিনাইদহে মহেশপুর উপজেলায় অন্তর্গত বদ্দিপুর একটি গ্রাম। এই গ্রামে গতরাতে একটি নৃশংস ঘটনা ঘটে গেল। জানা গেছে মহেশপুর উপজেলার এই গ্রামে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে গুন্ডারা। এটি গতকাল রাতের ঘটে যাওয়া ঘটনা।

ওসি মোরশেদ হোসেনের কাছ থেকে জানা গেছে, খাওয়া-দাওয়া করে রাত্রে দেড় বছরের সন্তান নিয়ে ঘরে ঘুমিয়ে ছিল ওই গ্রামের রমজান আলীর স্ত্রী রত্না খাতুন। ঘুমন্ত অবস্থাতেই অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির তাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যায়। এর পরে তার ঘুম ভেঙে যায়। আর সে দেখতে পায় তার শরীর থেকে প্রচন্ড পরিমানে রক্তপাত হচ্ছে। তাই সে ভয়ে এবং সে ব্যাথায় চিৎকার করতে শুরু করে। তার চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে তাকে বাড়ি থেকে উদ্ধার করে এবং যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার সকাল বেলায় তার মৃত্যু ঘটে।

তবে হঠাৎ করে এই হত্যাকাণ্ডটি কেন ঘটল তা পুলিশ এখনও জানতে পারেনি। এটি নিয়ে তদন্ত চলছে। প্রসঙ্গত রত্নার স্বামী রমজান আলী এখন জেলহাজতে আছে। জানা গেছে রমজান রমজান আলী মাদক মামলায় জেলে রয়েছে।

মাত্র দেড় বছরেই মা হারা হল রত্নার সন্তান। আর রত্না খাতুন তার সন্তান এবং স্বামীকে ফেলে মৃত্যুবরণ করল। তাই এই নৃশংস ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের খুব তাড়াতাড়ি তাদেরকে চিহ্নিত করে শাস্তি প্রদান করা হোক।তার এই হত্যাকাণ্ডটি তার স্বামীর উপর আক্রোশে ঘটেছে কিনা তা এখনো জানা যায়নি। আশা করি পুলিশ এ ব্যাপারে প্রচন্ড ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

হাই বন্ধুরা, প্রতিদিনের গুরুত্বপূর্ণ খবর পাওয়ার জন্য bangla.365reporter বুকমার্ক করে রাখুন। আর ফেইসবুক, টুইটার এবং পিন্টারেস্টে আমাদের সঙ্গে কানেক্ট করতে পারেন। ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.