“শরীরে অস্বাভাবিক আঘাত”- সুশান্তর প্রাক্তন ম্যানেজার দিশার পোস্টমর্টেম রিপোর্ট

সুশান্তের প্রাক্তন ম্যানেজারের নাম দিশা সালিওন (Disha Salian- The Ex Manager Of Sushant Singh Rajput)। তার মৃত্যুকেও সন্দেহজনক মনে হওয়ায় বডির পোস্টমর্টেম করা হয়। আর এই ময়নাতদন্তের রিপোর্টে চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেল। জানা গিয়েছে যে তার মাথায় অনেক গুলো আঘাত ছিল এবং শরীরে অস্বাভাবিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে (Unnatural Injuries In DIsha’s Body)। দিশা জুন মাসের ৯ তারিখে রাত দুটোর সময় মৃত্যুবরণ করে কিন্তু তার পোস্টমর্টেম করা হয় জুন মাসের ১১ তারিখে।

স্বাভাবিক দেখা যাচ্ছে যেখানে পোস্টমর্টেম রিপোর্ট আসছে ২ দিন দেরি হয়েছে। ফলে অনেকেই আঙ্গুল তুলে বলেছেন যে কেন এরকম দেরি হল? যে ডাক্তার এই পোস্টমর্টেম রিপোর্ট করেছেন তিনি একটা কথা স্পষ্ট করে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন যে, দিশার মৃত্যু আঘাতের ফলে হয়েছে। কারণ সে ১৪ তলা বিল্ডিং থেকে পড়ে গিয়েছিল। কিন্তু এর আগে কিছু লোক গুজব রটিয়েছিল যে, দিশা কে যৌন হয়রানি করা হয়েছে। কিন্তু এই কথাটির উল্লেখ রিপোর্টে নেই।

কারণ, মেয়েদের শরীরের পোস্টমর্টেমের ক্ষেত্রে যোনি কোষ (Vaginal Swab) তদন্ত করা হয়। এক্ষেত্রে স্যাম্পল পাঠানো হয়েছে।

বিভিন্ন রিপোর্ট অনুযায়ী, দিশার আত্মহত্যার ব্যাপারেও প্রচন্ড সন্দেহ রয়েছে। তবে মুম্বাই পুলিশ (Mumbai Police) এখনো ছাদ থেকে দুর্ঘটনাবশত পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দিচ্ছেন না। আর তারা এই ব্যাপারটিতে এখনো ইনভেস্টিগেট করে যাচ্ছেন।

ইতিমধ্যে, দিশার বাবা, সতীশ সালিওন (Harish Salian) মুম্বাই পুলিশের কাছে একটি চিঠি লিখেছেন। তার কথা অনুযায়ী,” মিডিয়া তার পরিবারকে ক্রমাগত হ্যারাস করছে।” তিনি তার চিঠিতে আরও জানিয়েছেন যে, তার মেয়ের কোন রাজনৈতিক ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ বা বিখ্যাত ফিল্মের প্রোডিউসারের সাথে যোগাযোগ, রেপের মতো ঘটনা এগুলো কোনটাই সত্য নয়। এই গল্পগুলো সংবাদমাধ্যম ফাঁদছে। তিনি পুলিশের কাছে আর্জি জানান যে, এই সমস্ত লোকদের বিরুদ্ধে যেন যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়।