যুদ্ধের ছক কষছে চীন? গোপন প্রস্তুতির ছবি স্যাটেলাইটে

একপাশে করোনায় আতঙ্কিত হয়ে আছে সমগ্র ভারতবাসী। অন্যদিকে কিছুদিন ধরেই লাদাখের সীমান্তের নিকটে চীনের সেনাবাহিনী ক্রমশ ঘাঁটি প্রস্তুত করছে। এরই ফলে বেড়েই চলেছে উত্তেজনা। চীনের সেনাবাহিনী ক্রমাগত ঘাঁটি গাড়ছে ভারতের সীমান্ত লাইন অব একচুয়াল কন্ট্রোলের নিকটে। আর এবার জনসাধারণের সামনে এলো সেই স্যাটেলাইট ইমেজ বা ছবি। আর তাতে প্রমাণ পাওয়া যায় যে বিভিন্ন জায়গায় তাবু খাটিয়েছে চীনের সেনা। সংখ্যায় অল্প হলেও বেশ কিছু ভারতীয় সেনার তাবুও দেখা গেছে ওই স্থানে। তবে দুই দেশের সেনার ক্যাম্পের মাঝখানে অনেকটা দূরত্ব বিদ্যমান।

মিডিয়ায় প্রকাশ হওয়া সেই ছবিতে দেখা যায় গালোয়ান ভ্যালির কাছে প্রায় 80 টি চিনা তাবু। তাদের কাছে যুদ্ধে ব্যবহার করা হয় এরকম কিছু যন্ত্রপাতি রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ দিয়ে বাংকার প্রস্তুত করা যেতে পারে। আর এসব দেখেই অনুমান করা হচ্ছে যে ভারত-চীন সীমান্তে সংঘর্ষ এখনি শেষ হবার নয়। কিছুদিন আগেই প্রথমে প্যাংগং তোসো লেক ও পরে গালোয়ান ভ্যালিতে চীনের সৈন্য বাহিনী পাঠানোর খবর সামনে আসে। শোনা যাচ্ছে যে ওই ভ্যালিতে আরও অতিরিক্ত চিনা সৈন্যের আনাগোনা শুরু হয়েছে।

বর্তমানে এমন খবর শোনা যাচ্ছে যে, লাদাখের বিখ্যাত প্যাংগং লেকের পূর্ব দিকের তীরে একের পর এক চীনা সৈন্য নৌকা জমায়েত করছে। আর এর ফলে নজরদারির পরিমাণ বৃদ্ধি করা হয়েছে। প্রসঙ্গত বলা যায় যে, এই লেকের পূর্বের প্রান্ত চীনের হলেও পশ্চিম প্রান্ত ভারতের অধীনস্থ। আর সেখানে ভারত রাস্তা প্রস্তুত করছে। আর মূলত এই নিয়েই চীনের প্রধান আপত্তি। 45 কিলোমিটার সীমান্ত জুড়ে চলছে সেনা টহলদারি। চীনেরা শুধুমাত্র নৌকাতেই থেমে যায়নি, তাদের সেনাদের শারীরিক প্রতিচ্ছবিতেও প্রকাশ পাচ্ছে আক্রমণ করার মত মনোভাব।

হাই বন্ধুরা, প্রতিদিনের গুরুত্বপূ্র্ণ খবর পাওয়ার জন্য bangla.365reporter বুকমার্ক করে রাখুন। আর ফেইসবুক, টুইটার এবং পিন্টারেস্টে আমাদের সঙ্গে কানেক্ট করতে পারেন। ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.