লক্ষ লক্ষ পরিযায়ী পাখিরা এসে জমায়েত শীত পড়ার আগেই

পরিযায়ী পাখিদের কথা আমরা বইতেও পড়ি, জানি , পরিযায়ী পাখি অর্থাৎ যে পাখি গুলো আমাদের দেশের নয় শীত পড়ার সময় অন্যদেশের থেকে আমাদের দেশে আসে। কিছু কিছু জায়গায় শীতকালের সময় এই পাখিদের দেখতে অন্য জায়গা থেকে লোকজন এসে ভিড় জমায়। তবে এই বছর হলো কিছু অন্যরকম শীত পড়ার আগেই পরিযায়ী পাখিদের ভিড় দেখা গেল। (Lakhs of Migratory Parijayi birds arrive in Paschim Medinipur Ghatal, West Bengal)

লক্ষ লক্ষ পরিযায়ী পাখি আগেই ভিড় জমিয়ে ফেলল পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটালের দিকে, পরিযায়ী পাখিদের একটা স্থায়ী জায়গা পরি সিংহ পুর জলাশয়টিতে। সকাল থেকে বিকেল সবসময় এই পাখিদের বুলি এখানের পরিবেশকে ত্বরান্বিত করে। তবে প্রত্যেক বছরের যতটা পরিযায়ী পাখি এই অঞ্চলে আসে তার থেকেও অনেক বেশি পরিযায়ী পাখি এইবার এই অঞ্চলে এসেছে।

সেখানকার বাসিন্দারা মনে করেন যে, যেহেতু সম্প্রতি কিছু মাস ধরে করোনা পরিস্থিতির কারণে যানবাহনসহ লোকজনের সমাগম অনেকাংশে কমে গেছে সেই কারণে হয়তো পরিবেশের ভারসাম্য সেটা অনেকটাই বদলে আছে এবং যার ফলে এই রকম ঘটনাটি ঘটেছে।

সেখানকার বাসিন্দাদের থেকে জানা গেছে যে, এই ঘাটালের কাছে পরিযায়ী পাখিদের আসা শুরু হয়েছে প্রায় ৮ বছর আগে থেকে, তবে এই অঞ্চলে যখন পলিটেকনিক কলেজ তৈরি হওয়ার কথা হচ্ছিল সেই সময় প্রায় পরিযায়ী পাখিদের আসা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। (Parijayi pakhi)

পাখিদের আরেকটি বিশেষ পছন্দের জায়গা হল হাওড়া সাঁতরাগাছি বিল। প্রচুর পরিযায়ী পাখি দেখতে প্রেমিকেরা ওখানে শীত এর সময়ে ভিড় জমায়।

হরিসিংহপুরের যে ঘাটাল , সেই ঘাটালের কাছে কলেজটি হওয়ার ফলে পরিযায়ী পাখিদের সংখ্যা অনেক কমে গিয়েছিলো কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে কলেজ বন্ধ, হওয়ায় সেখানে মেশিন গুলি বন্ধ থাকায়, সেখানকার এলাকায় শান্ত হয়ে যাওয়ার ফলে এবার প্রচুর পরিযায়ী পাখি সেখানে তাদের ঠিকানা করেছে।

Lakhs of Migratory Parijayi birds arrive in Paschim Medinipur Ghatal
লক্ষ লক্ষ পরিযায়ী পাখিরা এসে জমায়েত শীত পড়ার আগেই