এসএসকেএম-এ দুষ্কৃতীরা তাদের দৌরাত্ম্য দেখালো পুলিশের সামনেই

দিন যত যাচ্ছে অপরাধের পরিমাণ যেন ততটাই বাড়ছে। বাড়ি থেকে হসপিটাল, দোকান, বাজার কোথাও মানুষ আজ সুরক্ষিত নয়। কখন কিভাবে কার ওপর বিপদ এসে পড়বে সত্যিই জানা অসম্ভব। দিনের পর দিন যেন সন্ত্রাসের পরিমাণ বেড়ে চলেছে, তার সঙ্গে বাড়ছে দুষ্কৃতীদের দৌরাত্ম্য। যেকোনো খুন বা ডাকাতি কিছুতেই দুষ্কৃতীদের দৌরাত্ম্য সবচেয়ে বেশি। (Mobs torture 3 patients in SSKM Hospital, Kolkata even in front of Police)

তবে এইবার সামনেই দেখা গেল দুষ্কৃতীদের দৌরাত্ম্য বেগ ঠিক কতখানি। রাত প্রায় মাঝ রাতের কাছাকাছি হঠাৎই পরিচয় হীন কয়েক জন দুষ্কৃতী ঢুকে পরে কলকাতার এসএসকেএম হসপিটাল এ।

পুলিশের তরফ থেকে খবর পাওয়া যায় যে, রাত তখন প্রায় ১২:৩০ কাছাকাছি । এ সময় জরুরী বিভাগে ছিল ৩ জন যুবক। কোথা থেকে প্রায় পাঁচ ছয়জন দুষ্কৃতী এসে তিন যুবকের ওপর হামলা করে। তিন যুবকছিল হসপিটালের জরুরি বিভাগে। তারা ওযাটগঞ্জের বাসিন্দা। এই তিনজন যুবক আহত হয়ে পড়ে দুষ্কৃতীদের হামলার ফলে।

পুলিশের তরফ থেকে জানা যায় যে, এই তিন যুবক তাদের এলাকায় মাদকের ব্যবসা নিয়ে প্রতিবাদ করেছিল এবং যার জন্যই তাদের ওপর হামলা চালায়।

পুলিশ সামনে থাকা সত্বেও দুষ্কৃতীরা এইরকম স্পর্ধা কি করে দেখালো এখানেই পুলিশের শাসন ব্যবস্থার ওপর সত্যিই বড় প্রশ্ন ওঠে। তাহলে কি এখন দুষ্কৃতীদের এবং অপরাধের দৌরাত্ম্য এতটাই বেশি হয়ে গেছে যে যেখানে পুলিশ প্রশাসনকে ও তারা তোয়াক্কা করছে না?

জানা গেছে যে, ওই পাঁচ ছ জন দুষ্কৃতী দের মধ্যে একজন দুষ্কৃতীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে এবং বাকি কয়জন সকলেই সেখান থেকে পালিয়ে গেছে।

Mobs torture 3 patients in SSKM Hospital even in front of Police
এসএসকেএম-এ দুষ্কৃতীরা তাদের দৌরাত্ম্য দেখালো পুলিশের সামনেই (Credit : Google, partially symbolic photo)