করোনা সংকটে ভারতের বিরুদ্ধে মারাত্মক ষড়যন্ত্র পাকিস্তানের

বিধ্বংসী করোনা ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে বিশ্বের বেশিরভাগ দেশজুড়ে লকডাউন করা হয়েছে। প্রতিটি মানুষই রয়েছে তাদের নিজস্ব হোম কোয়ারেন্টাইনে। কারণ এই ভয়াবহ করোনা ভাইরাস বিশ্বের অধিকাংশ দেশে থাবা বসিয়েছে। আর এই সংকটপূর্ণ মুহূর্তে যখন গোটা পৃথিবীতে মর্মান্তিক পরিস্থিতি তখন ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে দিয়ে ক্রমাগত মস্তিষ্কের যুদ্ধ বেড়েই চলেছে। সাম্প্রতিক সময়ে পাক প্রধান ইমরান খানের একটি অরুচিকর মন্তব্য ভারতে সোশ্যাল মিডিয়াতে শোরগোল তুলে দিয়েছে। তবে তার এই ধরনের কুরুচিকর মন্তব্য প্রথম নয়।

অতীতেও তিনি বহুবার একই ধরনের বাজে মন্তব্য করেছেন। কয়েকদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু হিন্দুত্ববাদীদের বেফাঁস পোস্টের জন্য মধ্যপ্রাচ্যের ইসলামিক দেশ গুলির ভারতের সম্পর্কে বিরূপ মনোভাব হয়েছে। আর এই পরিস্থিতিকেই পুরোপুরি ভাবে কাজে লাগাতে উঠে পড়ে লেগেছে ভারতের প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তান। আর এখানেই তারা থেমে যায়নি। ইতিমধ্যে ভারতকে মুসলিম বিরোধী দেশ প্রমাণ করার জন্য আইটি সেল গঠন করে ফেলেছে পাকিস্তান। আর এটি তারা করেছে ট্যুইটারে। আর এই কর্মকান্ডের জন্য নাকি পাকিস্তান ইতিমধ্যে 7000 ভুয়ো ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট খুলেছে। ভারতীয় গোয়েন্দারা এমনটাই খবর জানিয়েছেন।

সুতরাং স্পষ্টতই বোঝা যাচ্ছে ভারতকে মুসলিমবিদ্বেষী প্রমাণ করার জন্যই এই কার্যকলাপ শুরু করেছে পাকিস্তান। আর এরই মাঝে ওই সমস্ত ফেক ট্যুইটার একাউন্ট থেকে পাকিস্তান ভারত বিরোধী কর্মকাণ্ড শুরু করেছে। গোয়েন্দারা আরো জানিয়েছে যে গত জানুয়ারি মাস থেকেই এই অ্যাকাউন্টগুলি ভারতকে আন্তর্জাতিক মহলে খারাপ প্রতিপন্ন করতে উঠে পড়ে লেগেছে।

হাই বন্ধুরা, প্রতিদিনের খবর পাওয়ার জন্য 365 রিপোর্টার বাংলা বুকমার্ক করে রাখুন। আর ফেইসবুক, টুইটার এবং পিন্টারেস্টে আমাদের সঙ্গে কানেক্ট করতে পারেন। ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.