নিজের মেয়েকে দিয়ে বেশ্যাগিরি করাচ্ছিলো বাবা-মা, গ্রেফতার কলকাতায় বাড়ি থেকে

Sex Racket in kolkata : মা-বাবা যারা হয়তো সারা দুনিয়ায় একমাত্র ভরসার একটি জায়গা। প্রত্যেকটা সন্তানের কাছে মা বাবা যখন হয়ে যায় রাক্ষসের সমতুল্য, তখন হয়তো সেই সন্তানদের বিপদে পড়া ছাড়া আর কোন জায়গা থাকে না। কলকাতার বুকে এক সন্তান তার মা-বাবা দ্বারা একটি ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়। (Parents do this with their own daughter so that police arrest them)

নিজের মা-বাবা তার সন্তানকে যে এরকম একটি জায়গায় ইচ্ছাকৃতভাবে ঠেলে দিতে পারে তা, হয়তো ভাবলেও সকলের বুক কেঁপে উঠতে পারে। সন্তানকে টাকার বিনিময়ে দেহ ব্যবসায় নামালেন তার মা-বাবা। ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতায়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রায় ছয় জনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। (Nijer meye ke dia bessagiri korachhilo baba maa)

খবর সূত্র জানা গিয়েছিল যে এই ঘটনাটি ঘটেছিল কলকাতার হরিদেবপুরে এবং সেখানেই যে একটি বাড়িতে এই ধরনের একটি দেহ ব্যবসা চালানো হচ্ছে, সেটারই খবর পেয়েছিলো পুলিশ এবং তারপরেই সেখানে তল্লাশি চালায়। তারা তল্লাশি চালাতে গিয়ে উঠে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। নিজের সন্তানকে নামিয়ে ছিলেন তার মা এবং বাবা। (Under age Prostitution case near Santosh Roy Road, Haridebpur PS area, Kolkata, West Bengal)

লালবাজারের গোয়েন্দারা সেই কিশোরীর মা এবং বাবা কে গ্রেপ্তার করেছে মা বাবা ছাড়া আরও চারজন ধরা পড়েছে পুলিশের জালে। বহু দিন ধরেই এই ব্যবসা চালানো হচ্ছিল। পুলিশের তরফ থেকে জানা গেছে যে, কলকাতার হরিদেবপুর থানা সংলগ্ন এলাকার কাছে সন্তোষ রায় রোডে এইরকম একটি ব্যবসা চালানো হচ্ছিল।

লালবাজারের গোয়েন্দারা এই তদন্তে নামে এবং তারপরে ওই বাড়িতে পাঠানো হয় কয়েকটি খদ্দেরকে এবং তারপরে সেই বাড়িতে পৌঁছে যায় গোয়েন্দারা। উদ্ধার করে ৩ নাবালিকাকে। তিনজনের মধ্যে দুইজনকে আনা হয়েছিল বাইরে জেলা থেকে। এবং আর একজনকে তার মা-বাবাকে এই ব্যবসায় নামিয়েছিল। এই কিশোরী জানায় যে, মা-বাবা তাকে বাধ্য করেছিল এই কাজে নামতে।