বাড়তে চলেছে মেয়েদের বিয়ের ন‍্যুনতম বয়স সীমা, জানালেন প্রধানমন্ত্রী

সুদূর অতীত থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত নারীশিক্ষা এবং নারীপ্রতিভায় দৃষ্টান্ত গড়ে তুলেছে ভারত। অতীতের মৈত্রী, গার্গীর মতো বিদূষী নারীরা নিজেদের প্রতিভার জন‍্য ইতিহাসে‌র পাতায় রয়ে গেছেন বহু যুগ ধরে। বতর্মানে‌ও নারীরা সমাজের সর্বত্র‌ পারদর্শিতা‌র পরিচয় দিয়ে প্রতিষ্ঠিত করেছে নিজেদেরকে (Women In India Empowers Themselves)। রাজনীতি, ক্রীড়া, বিনোদন, যুদ্ধ‌ক্ষেত্রে সর্বত্র নারী তার কর্মকাণ্ডের ছাপ রেখে চলেছে প্রতিনিয়ত। বর্তমানে নারীশিক্ষা, নারীসুরক্ষা এবং নারীদের উন্নয়নের ক্ষেত্রে সরকারের পক্ষ থেকে নানান পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এবার নারী ও শিশু সুরক্ষা‌র কথা মাথায় রেখে সরকার নয়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে। মহিলাদের বিবাহের বয়সের ন‍্যুনতম বয়সসীমা পুনর্বিবেচনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

৭৪ তম স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পর লালকেল্লা থেকে জাতির উদ্দেশ্যে বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মহিলাদের ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গে বলার সময় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, মেয়েদের বিয়ের ন‍্যুনতম বয়স পুনর্বিবেচনার জন্য গঠন করা হয়েছে বিশেষ কমিটি।

২০২০-২১ বাজেট ঘোষণার সময় অর্থমন্ত্রীর নির্মলা সীতারামন (Nirmala Sitharaman, Minister Of Finance) জানিয়েছিলেন, মেয়েদের ন্যুনতম বয়স ১৮ থেকে ২১ করার বিবেচনা করা হচ্ছে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি তে এ নিয়ে টাস্ক ফোর্স গঠনের কথা বলেছিলেন। ছয় মাসের মধ্যে রিপোর্ট তৈরির প্রসঙ্গ উল্লেখ করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী (PM Narendra Modi) জানিয়েছেন মহিলাদের নিয়োগ ও স্বনিযুক্তির ক্ষেত্রে সম-অধিকার গড়ে তোলায় সংকল্পবদ্ধ দেশ। এখন দেশের মহিলারা বুদ্ধ বিমানেও স‌ওয়ারী হচ্ছেন। বিভিন্ন রিপোর্ট অনুসারে মা শিশুর স্বাস্থ্য এবং পুষ্টির মাত্রা সংক্রান্ত একাধিক বিষয়ে মেয়েদের বিয়ের বয়স একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হিসেবে ধরা হচ্ছে।

ভারতে মহিলাদের বিবাহের ন্যুনতম বয়স সীমা হাজার ১৯২৯ সালে সারদা আইনের মাধ্যমে ঠিক করা হয়েছিল। তৎকালীন সময়ে মহিলাদের ন্যুনতম বয়স সীমা ছিল ১৪ বছর এবং পুরুষদের ১৮ করা হয়। পরবর্তী সময় ১৯৪০ সালে এবং ১৯৭৮ সালের এই আইনে পরিবর্তন আসে। ১৯৭৮-এ বিয়ের ন‍্যুনতম বয়স মহিলাদের ক্ষেত্রে ১৮ এবং পুরুষদের ক্ষেত্রে ২১ করা হয়।

২০০৬ বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ আইন আসে। এরপর আজ স্বাধীনতা দিবসের ভাষণ প্রধানমন্ত্রীর কথায় উঠে আসে মহিলাদের বিবাহের ন্যুনতম বয়স পূনর্বিবেচনার প্রসঙ্গ(PM Will Establish A Committee To Reconsider The Min Age Of Marriage Of Our Daughter)। কমিটি রিপোর্ট জমা পড়লেই এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে এ দিন জানান প্রধানমন্ত্রী।