যুবতীদের নিয়ে গোপন মধুচক্র ফাঁস। নাম জড়িয়ে গেল হেভিওয়েট কংগ্রেস নেতার

Malda : রমরমিয়ে চলছে মধুচক্রের কারবার। অভিযান চালিয়ে পুলিশ দুই জন যুবতীকে অত্যন্ত আপত্তিজনক অবস্থায় গ্রেপ্তার করেছেন। এই মধুচক্রের কারবারটি নির্দ্বিধায় চলছিল কংগ্রেসের এক নেতার বাড়িতে (Police arrests two girls from a Congress leaders home Madhuchakra, sex racket in Kuttitola, Malda, West Bengal)। কংগ্রেসের শ্রমিক সংগঠনের নেতার বাড়ি থেকেই আটক করা হয় ওই দুই যুবতীকে। বৃহস্পতিবার রাতে মালদা শহরের কুট্টিটোলা এলাকায় ঘটনাটি ঘটতে দেখা গেছে। বিগত বেশ কিছু সময় ধরেই অত্যন্ত গোপনে চলছিল এ কারবার ফলে অবশেষে বৃহস্পতিবার এলাকায় খবরটি ছড়িয়ে পড়লে অত্যন্ত হুল্লোড় শুরু হয়ে যায় এলাকায়।

এলাকার বাসিন্দারা অভিযোগ তুলেছেন শুধু এই বাড়ি নয় এর আগেও একাধিকবার ওই কংগ্রেস নেতার বাড়ি থেকে বেশকিছু জন অপরিচিত যুবতীকে আটক করেছিল পুলিশ এবং আবারও এই একই রকম ঘটনার জন্য এলাকাবাসীর প্রতিবাদ করেছেন যাতে এই নেতাকে এলাকা থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

prostitute graphic image
যৌনকর্মীর প্রতীকী ছবি

অপরদিকে কংগ্রেসের এই নেতা সম্পূর্ণ ব্যাপারটিকে মানতে নারাজ। তাকে চক্রান্ত করে ফাঁসানো হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন তিনি। এছাড়া তিনি তার মন্তব্যে জানিয়েছেন তার ওই বাড়িটি ভাড়া দেওয়া ছিল। শুধুমাত্র আধার কার্ডের পরিচয় এর উপর ভিত্তি করে বাড়িটি ভাড়া দিয়েছিল তিনি এর ফলে সেখানে নতুন বাসিন্দারা কি কাজকর্ম করছে সেটি তার একদমই অজানা বলে দাবি করেছেন তিনি।

এলাকাবাসীদের অভিযোগ শুনে পুলিশ বৃহস্পতিবার আটক করে ওই দুই যুবতীকে তার সাথে আটক করা হয় আরও দুই যুবককে। ইংরেজবাজার এর পুলিশ ইতিমধ্যেই তাদের তদন্ত শুরু করে দিয়েছে (Ingraj bazar English Bazar Police starts their investigation)।

<

এই বিষয়টি নিয়ে জেলা সভানেত্রী লক্ষ্মী গুহ কিছু মন্তব্য প্রকাশ করেন (Malda District Congress President Lakshmi Guha comments about the Shramik Sangathan neta)। তিনি জানিয়েছেন এই কংগ্রেস নেতার এইরূপ কার্যকলাপের ফলে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে। এর আগেও একাধিকবার নাকি এই নেতার মধুচক্রের সাথে যুক্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। লক্ষী দেবী ইতিমধ্যেই সম্পূর্ণ বিষয়টি সংগঠনের রাজ্য নেতৃত্বকে জানিয়েছেন বলে জানা গেছে।