জেল মুক্তির পর রিয়ার সঙ্গে মুভি করবেন প্রডিউসার নিখিল বাবু

একদিন হয়ে গেল সুশান্ত সিং রাজপুতের মামলায় অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী কে আটক করা হয়েছে (NCB arrests Rhea Chakraborty in Sushant Singh Rajput case)। তার এই জেল হেফাজতের কারণে অনেকেই খুশি হয়েছেন আবার অনেক অভিনেতা অভিনেত্রী তার পাশে দাঁড়িয়েছেন। ইতিমধ্যে সিনেমার প্রডিউসার নিখিল দ্বিবেদী রিয়াকে সমর্থন জানালেন। তার ইচ্ছা যে, সমস্ত কিছু নিষ্পত্তি ঘটে গেলে তারা একসঙ্গে কাজ করবেন। তিনি ট্যুইটারে এই ব্যাপারটি শেয়ার করে দিলেন।

তিনি লিখেছেন,”আমি তোমাকে চিনি না। আমি জানিনা তুমি কি রকম প্রকৃতির। হয়তোবা সবাই যেরকম খারাপ বলছে তুমি সেরকমই। হয়তোবা তা নয়। তবে একটা ব্যাপার আমি পরিষ্কার বুঝতে পারছি। তোমার সঙ্গে যা ঘটে চলেছে তা রীতিমতো অন্যায়, আইন সঙ্গত নয়। আর কোন সভ্য বা ভদ্র দেশ এই রকম ভাবে ব্যবহার করেনা। সমস্ত কিছুর নিষ্পত্তি হয়ে গেলে আমরা তোমার সঙ্গে কাজ করতে ইচ্ছুক।” (Producer Nikhil Babu wishes to work with Rhea after everything is over)

এদিকে তিনি রিয়া চক্রবর্তী কে সমর্থন করার জন্য অনেকে তাকে তীব্রভাবে কটাক্ষ করেছে (People trolls Nikhil Dwivedi for supporting Actress Rhea Chakraborty)। তারা কারন দেখিয়েছে যে, এই পরিচালক মৃত সুশান্ত সিং রাজপুত কে সমর্থন করেননি। একজন আবার ট্যুইট করে বলেছেন,”রিয়া চক্রবর্তীর হিরো এসেছে।” তিনি এর উত্তরে বলেন,”আদালত কি তাকে কয়েদি বানিয়েছে ?

যদি তারা সেই রায় দেয় তাহলে আমরা তার জন্য অপেক্ষা করবো এবং তার সংশোধনের সুযোগ দেব। আর যদি সে সংশোধন না করে নিজেকে, তাহলে আমি আমার কথা ফিরিয়ে নেব। কিন্তু এই মুহূর্তে মিডিয়া এবং আমজনতার উচিত নিজেদের মতো করে বিচার দেওয়া বন্ধ করা। আমার সমর্থন রিয়া চক্রবর্তীর প্রতি নয়, আমার নির্দোষীর প্রতি সমর্থন রয়েছে।”

তিনি অন্য একজন ফলোয়ারের উত্তরে বলেন,”যারা মনে করে যে তারা অনেক নীতি মেনে চলছে, তাদের জানা উচিত যে অনেক কিছু ঘটে চলেছে আজকে। ধন্যবাদ তাদেরকে। তারা টেম্পেলেট তৈরি করে দিয়েছে। তারা পুরোপুরি হেরে গিয়েছে। ২০০২ সালের লয়া কেসে মিডিয়া ঠিক এরকম ব্যবহার করেছিল। তবে এর একটা বিহিত হওয়া উচিত। আরুশি তালওয়ার কেসেই এই ব্যাপারের শেষ হওয়া উচিত ছিল।”

এরপর তিনি ট্রোলের উত্তরে বলেন,”অনেকে বলছেন যে আমি ড্রাগ ব্যবহারকারী অথবা ড্রাগ সরবরাহকারীদের কে সমর্থন করছি। তবে আমি কেয়ার করি না। আমি এখন রিয়াকে সাপোর্ট করছি না তবে আমি রুখেদার আছি যে দোষী সাব্যস্ত করার আগেই কাউকে দোষী বানানোর বিরুদ্ধে। যখন মিটু কেসে ছেলেদেরকে ফাঁসানো হচ্ছিল তখন ও আমার মাথা খারাপ হয়ে গিয়েছিল।”

প্রসঙ্গত, নিখিল বাবু ভিরে দি ওয়েডিং এবং দাবাং 3’র মতো মুভিতে কো- প্রডিউস করেছেন (Nikhil Talwar Co-produces movies like Veere DI Wedding and Dabangg 3 )। আর শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত, রিয়া চক্রবর্তী কে এনসিবির তরফ থেকে অ্যারেস্ট করা হয়েছে। কারণ তারা মনে করছে যে সুশান্তের মৃত্যুর সাথে ড্রাগের সম্পর্ক রয়েছে। তাকে মঙ্গলবার 14 দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে কোর্ট। এর আগে সে জামিনের আবেদন করেছিল কিন্তু তা খারিজ করে দেয় আদালত।