শেষ হলো চার বছরের পথচলার, শুটিং ফ্লোরে কেঁদে ফেললেন রানী রাসমণি দিতিপ্রিয়া রায়

দীর্ঘ চার বছর ধরে মনোযোগের সাথে জি বাংলা ধারাবাহিক করুণাময়ী রানী রাসমণি সিরিয়ালে অভিনয় করে চলেছেন রাণীমা দিতিপ্রিয়া রায়। অর্থাৎ এতদিনে তার সহ অভিনেতা অভিনেত্রীরা তার কাছে একটা পরিবারের মত। আর স্বাভাবিকভাবেই তার যেদিন এই সিরিয়ালের শেষ শুটিং হলো সেদিন প্রত্যেকের মুখ ভার। (Rani Rashmoni Ditipriya Roy and whole team cry on set)

তবে সিরিয়ালের গল্প অনুসারে সেই মুহূর্তে রাণীমার জীবন অবসান ঘটে ফলে দিতিপ্রিয়ার গল্প শেষ হয়ে গিয়েছিল ওখানে। ফলে তার আর কোন ডায়লগ নেই ফলে বেরিয়ে তো আসতেই হবে। কিন্তু মন তো মানে না! বিদায়ের দিন কথা বলতে গিয়ে ঝর ঝর করে কেঁদে ফেললেন।

রাণীমার মৃত্যুশয্যা শুটিং সম্পর্কে তিনি বললেন, “আমি চোখ খুলে দেখি আমার পাশের সহ অভিনেতা অভিনেত্রীরা সবাই গ্লিসারিন ছাড়াই কাঁদছেন।” তাছাড়া জি বাংলা কতৃপক্ষের তরফ থেকে এক বিশাল বড় খাওয়া-দাওয়ার আয়োজন করা হয় সেদিন।

এরপর সূত্র থেকে জানতে চাওয়া হয় রানী রাসমণির পরবর্তী জীবন তিনি কিভাবে কাটাবেন? তখন সে সংবাদমাধ্যমের কাছে দিতিপ্রিয়া বলেন,”রাসমণি আমার কাছে হার্টবিটের মত। রোজ সকালে দিনটা শুরু হতো রাসমণি দিয়ে। কল টাইম থাকতো গোটা দিনটা সেখানেই কেটে যেত। একটা সিরিয়াল করতে করতে দুটো বড় বড় বোর্ডসও দিয়েছি। এখন কলেজে পড়ছি। রাসমণির মেকআপ রুম জীবনের অনেক কিছুর সাক্ষী। খারাপ লাগা তো থাকবেই।”

তিনি আবেগঘন ভাবে জানালেন বিদায় বেলায় শুটিং এর গল্প।তিনি বললেন,”সে শুটিংয়ে সকলেই আমরা আবেগঘন হয়ে পড়েছিলাম, সবাই কেঁদে ফেলেছিলাম, তবে সেই পর্ব টা চেটেপুটে উপভোগ করেছি। যদিও অনেক দিন পর বেশ লম্বা একটা ছুটি পেয়েছি। তাই এখন আমার পরিকল্পনা লংড্রাইভে যাওয়ার, সঙ্গে বন্ধুবান্ধব আর পরিবার থাকবে সেখানে এছাড়াও আমি যেতে চাই বাইরে কোথাও ঘুরতে। ইতিমধ্যেই বন্ধুবান্ধব ও পরিবারের সঙ্গে একটা ট্রিপ প্ল্যান করে ফেলেছি।

আর রানী মা চরিত্র করার পর পরবর্তীতে কি চিন্তাভাবনা রয়েছে তার মনে? এর উত্তরে দিতিপ্রিয়া একটু ঘুরিয়ে উত্তর দিলেন। তিনি জানালেন যে তিনি হয়তো আবার ছোটপর্দাতেই ফিরতে চলেছেন। তবে একথা ঠিক যে তিনি আগামী অভিযাত্রিক সিনেমায় শর্মিলা ঠাকুরের চরিত্রে পাঠ করতে চলেছেন। তাছাড়া সেই সিনেমার ফার্স্ট লুক, সেকেন্ড লুক ইত্যাদি বিভিন্ন কয়েকটি লুক প্রকাশিত হয়েছে। অর্থাৎ তিনি খুব সাবধানে রানী রাসমনির ইমেজ ভেঙে নতুন চরিত্রের সঙ্গে নিজেকে মানানসই করতে চলেছেন।