শাশুড়ি কোলে তুলে নিল জামাইকে, ভাইরাল হলো ভিডিও

ভারতবর্ষে বিবাহ হলো ৪ দিনব্যাপী উৎসব। এই উৎসবে শুধু মাত্র দুটি মানুষের মিলন হয়না, মিলন হয় দুটি পরিবারের। এই উৎসবের মধ্য দিয়ে পরিবারের আত্মীয়-স্বজন একত্রে মিলিত হয়ে কিছুদিন আনন্দ করেন। (In this marriage festival, not only two people get together, two families get together. bibaho holo duti poribarer milon)

বিবাহসূত্রে আবদ্ধ হবার সময় শাশুড়ি এবং জামাই এর বেশ কিছু মজার নিয়ম থাকে। তার মধ্যে একটি হলো, বর বাবাজি যখন কনেকে বিয়ে করতে আসেন, তখন মেয়ের মা ছেলের নাক মুলে দেয়। তবে সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে এমন একটি শাশুড়ি এবং জামাইয়ের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, যা দেখে আপনি আপনার হাসি থামাতে পারবেন না কিছুতেই। এইরকম ভিডিও এর আগেও সোশ্যাল মিডিয়ায় বহুবার ভাইরাল হয়েছে, কিন্তু এই ভিডিওটি সকলে থেকে একেবারেই অন্যরকম। (sasuri jamai er nach dance video viral)

son in law and mother in law dance
শাশুড়ি জামাইয়ের তুমুল নাচ (ফেসবুক থেকে সংগৃহীত ফটো)

ভিডিওটি সম্ভবত কোনো বিয়ে বাড়ির ঘটনা। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, নতুন জামাইকে রীতিমতো করে তুলে নাচ করছেন শাশুড়ি মা। প্রত্যেকের বাড়িতে বিয়ের সময় আলাদা আলাদা নিয়ম থাকে। এরই মধ্যে একটি নিয়ম পালন করতে হয় প্রত্যেক মেয়েকে। বিয়ে করে শ্বশুরবাড়ি যাবার সময় এক মুঠো চাল পেছনে ছুড়ে দিয়ে বাবা-মায়ের সব ঋণ শোধ করে দিয়ে শ্বশুরবাড়ি চলে যায় মেয়ে। এটি অত্যন্ত বেদনাদায়ক একটি নিয়ম। তবে প্রত্যেক মেয়েকেই পালন করতে হয়। এই নিয়মের নাম কনকাঞ্জলি। ভালো না লাগলেও সকলকে পালন করতে হয় এই নিয়মটি। (Mother-in-law picks up son-in-law and dance effortlessly.) (Kanakanjali rule is so difficult for a girl)

https://www.facebook.com/watch/?v=301405850908073

কিন্তু এই ভিডিওটি অনেকটাই অন্যরকম। এই ভিডিও তে নিয়ম দেখে সকলে রীতিমত অবাক হয়ে গেছেন। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে বিবাহের পর কনের শ্বশুর বাড়ী যাবার সময়, কনে বসে রয়েছে। আর কনের মা অর্থাৎ বরের শাশুড়ি নতুন জামাইকে কোলে তুলে নিয়ে তুমুল নাচ করছেন।

সবথেকে আশ্চর্যের বিষয় টি হল,জামাইকে এইভাবে কোলে নিয়ে নাচতে গিয়ে একটু ও হাঁপিয়ে যাচ্ছেন না শাশুড়ি মা। তিনি খুব আনন্দ সহকারে জামাইকে কোলে তুলে নিয়ে নাচ করছেন। তার মুখে কোন কষ্ট অথবা ক্লান্তির ছাপ নেই। স্বাভাবিকভাবেই ঝড়ের গতিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিওটি শেয়ার হয়ে যায়।

সেই সঙ্গে শাশুড়ি মায়ের এনার্জির প্রশংসা করতেও বলেন নি কেউ। এই বয়সে কিভাবে একজন পুরুষকে কোলে নিয়ে তিনি নাচ করছে তা দেখার বিষয়। এই নিয়ম কে পালন করার জন্য সকলের মধ্যেই একটা উদ্দীপনা কাজ করছে। তবে এটি তাদের কোনো একটি নিয়মের মধ্যে পড়ে বলে মনে করা হচ্ছে না। নেহাতই আনন্দ করার জন্য এই নিয়মটি পালন করা হয় সেটা দেখেই বোঝা যায়।