ফাঁস হয়ে গেলো মাইকেল জ্যাকসনের অ্যান্টি গ্র‍্যাভিটি ডান্সের গোপন রহস‍্য

এমন মানুষ পাওয়া সম্ভব নয় যে বিখ্যাত গায়ক মাইকেল জ্যাকসনের নাম কোনদিন শোনোনি। গানের পাশাপাশি নাচেও জনপ্রিয় ছিলেন তিনি। তার একটি বিশেষ নাচের ভঙ্গি খুবই জনপ্রিয় দর্শকমহলে। নিজেকে ৪৫ ডিগ্রি কোণে শূন্যে ভাসিয়ে রাখতেন মাইকেল জ্যাকসন।

শুধুমাত্র মেঝেতে পা রেখে সঙ্গে ৪৫ ডিগ্রি কোণে দেহকে হেলিয়ে রাখতে পারতেন বেশ কিছুক্ষণ। বর্তমানে এরকম নাচের দৃশ্য করা হয় হার্নেস টেকনোলজি বা দড়ির সাহায্যে (365 Reporter Bangla Entertainment News: secrets of Michael Jackson’s anti gravity dance by harness technology)। কিন্তু মাইকেল জ্যাকসন কোনরকম প্রযুক্তির ছাড়াই এই নাচের পদ্ধতি দেখিয়েছিলেন একে বলা হয় অ্যান্টি গ্র‍্যাভিটি ডান্স।

যখন মানুষ ভূপৃষ্ঠের অপর সোজা হয়ে না দাঁড়িয়ে নিজেকে ৪৫ ডিগ্রি কোণে হেলিয়ে রাখেন শরীরের ভরকেন্দ্র পরিবর্তন হয়ে যায়। ফলে শরীরের ভারসাম্য নষ্ট হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। কিন্তু মাইকেল জ্যাকসন অনায়াসে এটি করতে পারতেন‌। এর পিছনে লুকিয়ে রয়েছে একটি রহস্য। এই রহস্য লুকিয়ে ছিল মাইকেল জ্যাকসনের পোশাকে।

তার বিশেষ পোশাকটি বানিয়েছিলেন ডেনিস টমকিনস। মাইকেল জ্যাকসন ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন তিনি কোনরকম দড়ি বা প্রযুক্তি ছাড়াই নিজের দেহকে ৪৫ ডিগ্রি কোণে হেলে হেলিয়ে রাখবেন। তাই তার ইচ্ছার কথা মাথায় রেখে তার পোশাক ডিজাইনার ডেনিস টমকিনস পোশাক তৈরি করেন।

Michael Jackson performing his anti-gravity dance
মাইকেল জ্যাকসন নাচের সময় ৪৫ ডিগ্রী কোণে হেলে রয়েছে (ফটো ক্রেডিটঃ ইউটিউব)

১৯৯২ সালে একটি লাইভ অনুষ্ঠানে কোনরকম প্রযুক্তি ছাড়াই এই বিষয়টি করে দেখান। যা দর্শককে অবাক করেছিল। পোশাক ছাড়াও রহস্য লুকিয়ে ছিল মাইকেল জ্যাকসনের জুতোতে। মাইকেল জ্যাকসনের ম্যাজিক সু বিশেষ প্রযুক্তিতে তৈরি। নাচ করার সময় মেঝের মধ্যে জুতো আটকে ধরে রাখার ক্ষমতাসম্পন্ন। সেক্ষেত্রে সামনের দিকে ঝুঁকলেও কখনোই পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকত না।

মাইকেল জ‍্যাকসন এই জুতোটি পড়ে অ্যান্টি গ্রাভিটি ডান্স করে সারা বিশ্বে জনপ্রিয়তা পান। তার মৃত্যুর পরেই ম্যাজিক সু নিলামে ওঠে। অবশেষে ৪ কোটি ২৫ লক্ষ ৩৫ হাজার ৯০০ টাকায় বিক্রি করা হয় বিখ্যাত ম্যাজিক সু। বর্তমানে এই জুতোজোড়া রয়েছে রাশিয়ার হার্ড রক ক‍্যাফেতে (Michael Jackson’s magic shoes in a Hard Rock Cafe, Russia)।