অসহায় আদিবাসী কিশোরীর সহায়ক হয়ে পাশে দাঁড়ালেন সোনু সুদ

লকডাউনে পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানো ও ৩৯ টি শিশুর লিভার প্রতিস্থাপনের জন‍্য ভারতে আনা, এরপরে মাওবাদী অধ্যুষিত এলাকার এক আদিবাসী কিশোরীর পাশে দাঁড়ালেন সোনু সুদ।ছত্রিশগড়ের বস্তার মাওবাদী অধ্যুষিত অঞ্চল (Maobadi affected Bastar District, Chhattisgarh) নামে পরিচিত। টানা পাঁচদিন বৃষ্টিতে বন্যায় জলমগ্ন গোটা এলাকা। ওই এলাকার বাসিন্দা অঞ্জলি কুদিয়ামের সাহায‍্যে পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলিউডের এই অভিনেতা (Sonu Sood outstretches his helping hand to a tribal girl, Anjali Kudiyam)।

টানা পাঁচদিন বৃষ্টির ফলে সমগ্ৰ এলাকা জলমগ্ন। ইতিমধ্যে একজনের মৃত্যু হয়েছে, ১২০টির বেশি বাড়ি ধসে গিয়েছে। এলাকা থেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে ১৫০০ মানুষ‌কে। আদিবাসী কন্যা অঞ্জলি কুদিয়ামের দুরাবস্থার কথা জানতে পেরে সোনু সুদ আশ্বস্ত করেন, “চোখের জল মুছে ফেলো বোন, নতুন বই আসবে, বাড়িও নতুন করে তৈরি হবে” (“Ansu poch le bahan, kitaben bhi nai hongi ghar bhi naya hoga”)।

স্থানীয় এক সাংবাদিক মুখের চন্দনাকারের ক্যামেরায় ধরা পরে আদিবাসী কিশোরী অঞ্জলি কুদিয়ামের (Poor girl Anjali Kudiyam News from Kamala Village Panchayat) সংকটজনক অবস্থা। এরপরেই সেই ভিডিও সাংবাদিকের তরফের সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হলে নজর কাড়ে সোনু সুদের। তার পরেই তিনি এগিয়ে আসেন কিশোরীর পাশে দাঁড়াবার জন্য।

খবর সূত্র জানা যায়, অঞ্জলির বাবা পেশায় একজন কৃষক। নষ্ট হয়ে গিয়েছে জমির সমস্ত ফসল। এই দুরবস্থায় সাহায্যের হাত বাড়িয়েছে স্থানীয় প্রশাসন‌ও। জেলার কালেক্টর রীতেশ আগর‌ওয়াল এবং বিধায়ক বিক্রম মানধাবি অঞ্জলির হাতে তুলে দিয়েছেন ১.১ লক্ষ টাকা। যাতে তারা নতুন করে বাড়ি তৈরি করতে পারে। অঞ্জলি কুদিয়াম নার্সিং ট্রেনিং -এ ভর্তি হওয়ার জন্য প্রবেশিকা পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। তার সমস্ত বই তাকে আবার দেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন ওই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

দুঃসময়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানোয় নজির গড়েছেন সোনু সুদ। এর আগে পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানো থেকে দরিদ্র কৃষক পরিবারকে ট্রাক্টর দেওয়া, এরকম নিঃস্বার্থভাবে সাহায্য করতে দেখা গেছে সোনু সুদকে। এবার এই আদিবাসী কন্যার পাশে দাঁড়িয়ে আবার‌ও নেটিজেনদের মন জয় করলেন সোনু সুদ।