আগুনে ঘি ছুঁড়লেন সুশান্তের বডিগার্ড! অগ্নিগর্ভ মন্তব্য রিয়া ও তার পরিবারের বিপক্ষে

জুনের 14 তারিখে আমাদের প্রত্যেকের প্রিয় অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput) সবাইকে ছেড়ে দূর দেশে পাড়ি দিয়েছেন। তিনি বেঁচে থাকা অবস্থায় দাপটের সঙ্গে বলিউডে কাজ করেছেন। কিন্তু মৃত্যুর পর তাকে নিয়ে জল্পনা যেন থামছেই না। বিভিন্ন রকম ব্যাপার উঠে আসছে তাকে ঘিরে।

তাছাড়া প্রতিনিয়ত হেভিওয়েট লোকজন অগ্নিগর্ভ মন্তব্য করে যাচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে কিংবা খবরের চ্যানেলে। আর এই বিস্ফোরক মন্তব্য গুলির বেশিরভাগই সইতে হচ্ছে রিয়া চক্রবর্তীকে। ইতিপূর্বে কেকে সিং, সুশান্ত সিং এর বাবা, রিয়া (Rhea Chakraborty) এবং তার ফ্যামিলির বিপক্ষে অনেকগুলো অভিযোগ দায়ের করেছেন। একে একে সুশান্তের দিদি, তার পূর্বের গার্লফ্রেন্ড অঙ্কিতা লোখান্ডে (Ankita Lokhande) ও বিভিন্ন ধরনের কথা ছুড়ে মারছেন। এবার অগ্নিঝরা মন্তব্য করলেন সুশান্তের বডিগার্ড।

তার কথা অনুসারে, “সুশান্ত আত্মহত্যা করার মত কাজ করার ছেলে নয় (Sushant can’t commit suicide)। ওর মৃত্যুর সঠিক তদন্ত চাই। তাতে করে দ্রুত আত্মা শান্তি লাভ করে।”

তিনি আরো বলেছেন,”অনেকখানি সময় জুড়ে সুশান্ত শারীরিক অসুস্থতায় ভুগতেন। তাছাড়া অনেক সময় জুড়ে তার ঘুম ঘুম ভাব থাকতো। তার সঙ্গে ঠিকঠাক ভাবে কেউ কথা বিনিময় করতে সক্ষম হতো না। সুশান্ত এরকম প্রতিকূল পরিস্থিতিতে রিয়া চক্রবর্তী, তাঁর ভাই, বাবা এবং বন্ধুদের নিমন্ত্রণ করতেন সুশান্তের ফ্ল্যাটে। প্রত্যেকে একই সাথে উদোম পার্টিতে মেতে উঠতেন। আর সুশান্তের টাকায় ফুর্তি করতেন।”

তিনি ক্রমাগত তার ক্ষোভ উগরে দিতে থাকেন রিয়ার বিরুদ্ধে। তিনি জানিয়ে দেন,”রিয়ার সাথে যোগাযোগ হওয়ার পর সুশান্ত ঠিকঠাকই ছিল। কিন্তু তার লাইফে রিয়া সঙ্গে বন্ধুত্ব হওয়ার পরই সম্পূর্ণভাবে পাল্টে যান। পরবর্তীকালে দেখা গিয়েছিল যে রিয়া, সুশান্তের বাড়ির একাউন্টেন্ট সহ প্রতিটি কাজের লোকজনকে পাল্টে দিয়ে নতুন লোককে নিয়ে আসেন। তাই ওখানে শুধুমাত্র সুশান্ত ছিল আগের।”

তিনি আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ কথা উল্লেখ করলেন। সেটি হল,”…আর ওই বাড়িতে সুশান্তের বাড়ি থেকে শুধুমাত্র একজন সদস্যাই আসতেন। তিনি হলেন সুশান্তের দিদি প্রিয়াঙ্কা সিং )Priyanka Singh)। ভাইয়ের প্রতি গভীর অনুরাগে মাঝেমধ্যে তার সঙ্গে দেখা করতে চলে আসতেন। তার কাছেও ব্যাপারটা খাপ্পা লেগেছিল। তিনি স্পষ্ট দেখেছিলেন, সুশান্তের টাকাগুলি অযথাই উড়িয়ে দিতো রিয়ার পরিবারের লোকজন। বেশিরভাগ সময়ই পার্টি অনুষ্ঠান হতেই থাকতো। আর এই এক বছরে রিয়া পথে নামিয়ে দিয়েছে সুশান্তকে।”