ব্লকবাস্টার হলো সুশান্তের শেষ ছবি ‘দিল বেচারা’

জুলাই মাসের 24 তারিখের জন্য গভীরভাবে আগ্রহ নিয়ে বসেছিল লাখ লাখ মানুষ। কারণ অকালে প্রয়াত সুশান্ত সিং রাজপুতের Sushant Singh Rajput, সর্বশেষ ছবি ‘দিল বেচারা’ Dil bechara এই দিনে রিলিজ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল। অনলাইন প্লাটফর্ম দিস্নে প্লাস হটস্টারে এগজ্যাক্টলি সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে রিলিজ করা হয় রাজপুতের শেষ ছবি দিল বেচারা। আর মুক্তি দেয়ার সাথে সাথেই চারদিকে হৈচৈ পড়ে যায়।

মুভিটি রিলিজ দেয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ফেসবুক টুইটার সহ বিভিন্ন প্রকার সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মে ট্রেন্ডিং হতে শুরু করে দেয়। তাছাড়া আইএমডিবি IMDb, যেটি একটি মুভি রিভিউ করার ওয়েবসাইট সেখানে 9.8 রেটিং অর্জন করেছে এই মুভিটি। রাত্রি 11 টা 25 পর্যন্ত আইএমডিবিতে পুরো দশ রেটিং এর মত সর্বোচ্চ রেটিং অর্জন করেছিল এই ছবিটি। যা এক কথায় অবিশ্বাস্য। অসংখ্য সুশান্ত প্রেমীরা তার এই শেষ ছবি কে সুপার হিট করে দিয়েছি অলরেডি।

গত শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার সময় হটস্টারে Hotstar-এই মুভিটি কে রিলিজ করা হয় ‌। কিন্তু এই সময়ের পূর্বে থেকেই অনেক মানুষ হটস্টার খুলে গভীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন কখন মুভিটি মুক্তি পাবে। মূলত প্রিয় অভিনেতার সর্বশেষ সিনেমাটির একবিন্দু সময়ও কেউ হারাতে চাইছিলেন না। ফলে যা হবার তাই হলো। অত্যাধিক পরিমাণ মানুষ একই সাথে দিল বেচারা ছবিটি দেখতে শুরু করে দেওয়ায় হটস্টার ক্র্যাশ করে যায়।

ফলে অনেক মানুষ এই ছবিটি দেখতে কি অসুবিধার মুখে পড়েন। অনেকে আবার সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম টুইটারে নিজেদের অসুবিধার কথা ব্যক্ত করেন। অনেক মানুষ আবার এও বলেন যে তারা ট্রেলার রিলিজ করার সময় থেকেই বুঝতে পেরেছিলেন যে এরকম একটা পরিস্থিতির সৃষ্টি হওয়া অসম্ভব কিছু নয়। সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ হল এই ছবিটির পরিচালক হনসল মেহেতাও হটস্টার ক্র্যাশ করার কারণে ছবিটি দেখতে গিয়ে অসুবিধার সম্মুখীন হন।

এ প্রসঙ্গে একটা কথা বলতেই হয় যে জুলাই মাসের 6 তারিখে বিকেল চারটের দিকে রিলিজ করা হয় দিল বেচারা ট্রেইলার। আর ইউটিউবে আপলোড করার সঙ্গে সঙ্গেই ইউটিউব এবং টুইটারে এক নম্বরে ট্রেন্ডিং হয়ে যায় এই ট্রেইলারটি। রিলিজ করার 24 ঘন্টার ও অল্প সময়ের মধ্যে বিশ্ব রেকর্ড অর্জন করে সুশান্তের শেষ ছবিটির ট্রেইলার।

ট্রেইলারটি মুক্তি দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই এটাই অ্যাভেঞ্জার্স ইনফিনিটি ওয়ার ছবির ইউটিউব এর রেকর্ডটি ভেঙে দেয়। এতদিন পর্যন্ত 36 লক্ষ লাইক অর্জন করেছিল এভেন্জার্স ইনফিনিটি ওয়ার ট্রেলার। কিন্তু দিল বেচারা ট্রেলার রিলিজ করার মাত্র 30 ঘণ্টার মধ্যেই লাইক পড়ে যায় 58 লক্ষ। ফলে এটি ইনফিনিটি ওয়ার এর রেকর্ডকে ভেঙে দিয়ে নতুন করে বিশ্ব রেকর্ড অর্জন করে। তাছাড়া ইউটিউবে এই ট্রেইলরটি এখনো পর্যন্ত 2 কোটি 75 লক্ষ মানুষ দেখে ফেলেছেন।

সুশান্তর প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে প্রত্যেকেই যাতে এই ছবিটি বিনামূল্যে দেখতে পায় তার সুযোগ দিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই ছবিটির মূল গল্প কিজি বাসু ও ইম্যানুয়েল রাজকুমার জুনিয়রকে ঘিরে। শুরুতেই দেখা যায় কি জি থাইরয়েডের ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে রয়েছে। কলেজে গিয়ে তার সঙ্গে ইম্যানুয়েলের পরিচয় হয়। আরে ও জানা যায় যে অতীতে অস্টিওকারসোমা নামক রোগে সেও আক্রান্ত হয়ে পড়েছিল। কিন্তু এত করেও তার চার্মিং ব্যক্তিত্বে কোন প্রকার ছাপ আসেনি। সেতার ইমেজকে দারুণভাবে ধরে রেখেছে।

এরপর গল্প এগুলোর সাথে সাথে তাদের দুজনের মধ্যে বন্ধুত্ব শুরু হয়। তাদের এই সম্পর্ক টি আর একটু গভীর হওয়ার মুহূর্তেই কিজির ক্যান্সার দুজনের মাঝে দেয়াল হয়ে দাঁড়ায়। ফলে ইম্যানুয়েল কে দুঃখ না দেয়ার কারণে কিজি স্থির করে যে সে তার সঙ্গে কথা বলা বন্ধ করে দেবে। কিন্তু এত অল্পেই ইম্যানুয়েল তাকে দূরে সরে যেতে দিতে চাইছিল না। কারণ রাজা রানীর না শেষ হওয়া গল্প টা যে সম্পূর্ণ করতে হবে।

এই ছবিটি দেখার সঙ্গে সঙ্গে প্রত্যেকের চোখে জল পূর্ণ হয়ে গিয়েছিল। সুশান্ত এর অভিনয় প্রতিভা দেখতে গিয়ে আবার হৃদয় ছুঁয়ে গেল প্রত্যেকের। ছবির শেষ পরিণতি অনেক দর্শকই মন থেকে গ্রহণ করেননি। এছাড়াও অনেকেই কল্পনাও করতে পারছেন না যে এটাই সুশান্তের সর্বশেষ অভিনীত সিনেমা।