চা দোকান করেও উচ্চমাধ্যমিকে 468! আরমান অধ্যাপক হওয়ার স্বপ্ন বুনছে

আজকে আমি বলতে চলেছি আর্থিক দুর্দশা কে চ্যালেঞ্জ করে ভাগ্য জয়ের এক গল্প। এমনটাই ঘটেছে মুর্শিদাবাদের সুতি-1 বহুতলী হাই স্কুলের ছাত্র আরমান শেখ এর ক্ষেত্রে। সে চা দোকান চালিয়ে সংসার চালিয়েছে কিন্তু এতে তার পড়াশোনায় কোন প্রকার বাঁধা পড়িনি। সে 468 নম্বর পেয়েছে উচ্চমাধ্যমিকে। আর এভাবেই সে সবাইকে চমক লাগিয়ে দিয়েছে। তার ভবিষ্যতের স্বপ্ন অধ্যাপক হওয়ার।


এক্ষেত্রে তার প্রকৃত বাধা আর্থিক অনটন। অধ্যাপক হতে চায় ঠিকই কিন্তু তার পরিবার কি তার স্বপ্ন পূরণে সাহায্য করতে পারবে? তার বাবা নিবিড় শেখ উত্তর দেন, “সংসারটা মূলত ওই চালায়। আমি সুস্থ নই। তাই চায়ের দোকানে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে কাজ করা আমার পক্ষে অসম্ভব। ওকে কি করে কলেজে ভর্তি করব তা নিয়ে দুশ্চিন্তা করছি।”

তবে এ রাজ্যের এক মন্ত্রী জাকির হোসেনের বাড়ি ওই এলাকাতেই। তিনি এর উত্তরে বলেছেন, “এত আর্থিক অনটনের মধ্যেও এত সুন্দর একটা রেজাল্ট করতে পারবে তা অলৌকিক। ভবিষ্যতের পড়াশোনার যাতে কোনোভাবেই ক্ষতিগ্রস্থ না হয় সেদিকে আমি সব সময় নজর রাখব।”

আরমান নিজের স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে পারবে কিনা তা সময়ের অপেক্ষা। কিন্তু একজন মেধাবী ছাত্র হিসেবে ইতিমধ্যেই সে নিজেকে প্রমাণ করে দিয়েছে সবার কাছে।
এবার তার ভবিষ্যতের স্বপ্ন পূরণ করার জন্য কাউকে সাথে পাবে কিনা সেটাই দেখার বিষয়।

হাই বন্ধুরা, প্রতিদিনের গুরুত্বপূ্র্ণ খবর পাওয়ার জন্য bangla.365reporter বুকমার্ক করে রাখুন। আর ফেইসবুক, টুইটার এবং পিন্টারেস্টে আমাদের সঙ্গে কানেক্ট করতে পারেন। ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.