হাথরসে মৃত তরুণীর মায়ের বয়ানে উঠে এলো কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য

এখনো বিচার পায়নি নির্যাতিতার পরিবার। হাথরাসের ঘটনায় নির্যাতিতার পরিবার তুলে ধরছে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। বিগত কিছু সময় আগে বিজেপির এক প্রাক্তন বিধায়ক মন্তব্য করেছিলেন যে নির্যাতিতার খুন হওয়ার পিছনে দায়ী তার মা ও ভাই, অর্থাৎ মা ও ভাই মিলে নির্যাতিতাকে খুন করেছে বলে দাবি তুলেছিলেন তিনি। শুধু তাই নয় নির্যাতিতার পরিবার যে চারজনের বিরুদ্ধে মামলার অভিযোগ এনেছিল সেটিও সম্পূর্ণ ভুল এবং ওই চারজন অভিযুক্ত নির্দোষ, তাদের ইচ্ছাকৃত ফাঁসানো হচ্ছে বলে মনে করেছিলেন তিনি।

পাশাপাশি নির্যাতিতার পরিবার তথা তার মা অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ গুলি তুলে ধরেছেন সেগুলি অত্যন্ত গুরুতর (Hathras, Uttar pradesh Rape case : The mother of Monisha Balmiki reveals some important matters)। তিনি জানিয়েছেন তার মেয়ে রাস্তায় বেরোলেই তাকে জ্বালাতন করত অভিযুক্তরা এবং এটি বিগত বেশ কিছু মাস ধরে চলে আসছে।

the burnt bones of the tortured girl
the burnt bones of the tortured girl

তাদের কোন ভাবে আটকানো যেত না, দিনের-পর-দিন উত্ত্যক্ত করার হার বেড়েই চলেছিল। ফলে নির্যাতিতার বাড়ি থেকে বেরোনো একরূপ বন্ধ হয়ে যায় বলে জানিয়েছেন তার মা। নির্যাতিতা তার পরিবারকে জানিয়েছিল , সে যখনই রাস্তায় বের হতো তখনই অভিযুক্তরা তাকে ঘিরে নানা রূপ কটুক্তি করত এবং তার রাস্তা আটকে দিত।

কিছু কিছু সময় বিশেষ দরকারে তাকে বাড়ির বাইরে বের হতে হলে তার বৌদি তার সাথে একাধিকবার গিয়েছিল। তাতেও নাকি থেমে থাকেনি অভিযুক্তরা, দু’জনকেই ফলো করে অবশেষে কটুক্তি শুরু করে রাস্তা আটকে এইরূপ অভিযোগ এনেছে নির্যাতিতার পরিবার।

অপরদিকে অভিযুক্তদের পরিবার এই সব অভিযোগ সম্পূর্ণ ভাবে অস্বীকার করেছেন। তারা জানিয়েছেন নির্যাতিতার পরিবার ইচ্ছাকৃত এই সমস্ত অভিযোগ তুলছেন। অভিযুক্তর পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন যে তাদের পরিবারের ছেলেরা সম্পূর্ণ নির্দোষ। জানা গেছে যে চারজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছিল নির্যাতিতার পরিবার সেই চারজনের মধ্যে তিনজন বিবাহিত এবং একজনের সাম্প্রতিক বিবাহের কথা চলছে। শুধু তাই নয় যে তিনজন বিবাহিত তারা সকলেই এক একজন পিতা।