রাজ্য সরকার চাকরি দিচ্ছে কর্মরত অবস্থায় থাকাকালীন মৃত সিভিক ভলেন্টিয়ারের পরিবারের সদস্যকে

রাজ্যের ও ট্রাফিক পুলিশ এবং অন্যান্য যে সমস্ত পুলিশকর্মীরা রয়েছেন তাদের দৈনন্দিন কাজের চাপ কমানোর জন্য সরকারের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছিল একটি পদক্ষেপ, এই পদক্ষেপের জন্য অনেকেরই কর্মসংস্থান হয়েছিল। (Karmasangsthan News : WB Govt will provide jobs to these family members who is dead during work as a civic volunteer)

কিছু ছেলেমেয়েদের সিভিক ভলেন্টিয়ারের চাকরি দেয়া হয়েছিল এবং যেখানে দৈনিক ভাবে টাকা দেওয়া হতো ১৪১ টাকা। কিন্তু দিন যত বাড়ছে সেই টাকার পরিমাণটাও তত বাড়ছে এখন সিভিক ভলেন্টিয়ার দের বেতন প্রায় ৯০০০ টাকা। এইবারে সেই সমস্ত সিভিক ভলেন্টিয়ার যারা কর্মরত অবস্থায় মারা গেছেন তাদের পরিবারের কথা ভেবে সরকারের পক্ষ থেকে নেওয়া হল একটি পদক্ষেপ।

এই পদক্ষেপের ঘোষণা করেন মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্নে অনুষ্ঠিত করা একটি সাংবাদিক বৈঠকে। এই বৈঠকে তিনি ঘোষণা করেন যে আমাদের রাজ্যে এখনও পর্যন্ত কর্মরত অবস্থায় সিভিক ভলেন্টিয়ার যারা মারা গেছেন তাদের সংখ্যা হল ৩১৫ জন। এর সাথে সাথে মহিলা সিভিক ভলেন্টিয়ার ও তাদের প্রাণ হারিয়েছেন গ্রামীন সিমে সিভিক ভলেন্টিয়ার এর মধ্যে প্রায় ২১ জন তাদের প্রাণ হারিয়েছেন কর্মরত অবস্থায় থাকতে।

এইবার সেই সমস্ত সিভিক ভলেন্টিয়ার দের পরিবারের কথা ভেবে এই সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। খবর সূত্রে বেশিরভাগই জানা যায় যে বেশিরভাগ পথ দুর্ঘটনার ফলে মারা যায় সেই সমস্ত সিভিক ভলেন্টিয়াররা।

এই দিন নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন যে, “এর আগে পর্যন্ত এ রাজ্যে কোন রকম নিয়ম ছিল না যে সিভিক ভলেন্টিয়ার এর মৃত্যু হলে তার পরে তার পরিবারের কোনো সদস্যকে চাকরি দেওয়া হবে, কিন্তু আমরা সেই নিয়ম চালু করতে চলেছি। হিসাব করে দেখা গেছে প্রায় ৩৪৫ জন সিভিক ভলেন্টিয়ার কর্মরত অবস্থায় মারা গিয়েছেন এবং যাদের পরিবারের সদস্যদের চাকরি দেওয়া হবে”।

WB Govt will provide jobs to these family members who is dead during work as a civic volunteer
রাজ্য সরকার চাকরি দিচ্ছে কর্মরত অবস্থায় থাকাকালীন মৃত সিভিক ভলেন্টিয়ারের পরিবারের সদস্যকে (SOurce : Google)