“করোনার চাইতেও ভয়াবহ মহামারী আসতে চলেছে পৃথিবীতে”- WHO সতর্কবার্তা

এই মুহূর্তে করোনা মহামারীর ফলে গোটা পৃথিবীর স্বাভাবিক জীবনযাপন ব্যাহত হয়েছে। শেষ পাওয়া পরিসংখ্যান অনুসারে, পুরো পৃথিবীতে এখন করোনা রোগে আক্রান্ত হয়ে গিয়েছেন 2 কোটি 77 লক্ষেরও বেশি। আর মৃত্যুবরণ করেছেন 9 লক্ষ 2 হাজার 130 জন লোক। আর এই মুহূর্তে করোনা রোগ কমার কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। দিনের-পর-দিন আকাশচুম্বী হয়ে যাচ্ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এই ভয়ঙ্কর দিনে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা WHO-এর ডিরেক্টরের কথা আরো ভয় খাইয়ে দিল সবাইকে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ডিরেক্টর জেনারেল হলেন টেড্রস আধানম (The Director General of WHO- Tedros Adhanom)। তিনি একটি ভিডিওর মাধ্যমে সবাইকে সতর্ক বার্তা দিয়েছেন (Who director general warns about the next pandemic)। তার কথা অনুযায়ী, এই মুহূর্ত থেকেই গোটা পৃথিবীর সবাইকে পরবর্তী প্যানডেমিক এর জন্য প্রস্তুতি ভালোভাবে সম্পন্ন করতে হবে। আর এতে করে পুরো বিপর্যয় কে মোকাবেলা করা সম্ভব হবে।

তিনি বললেন,” কেউ জোর দিয়ে বলতে পারবেনা যে এটাই পৃথিবীতে ঘটে যাওয়া শেষ মহামারী (COrona pandemic is not the last mahamari in the world)। কারন ইতিহাস ঘাঁটলে এই শিক্ষাটিই পাওয়া যায়। এটা খুবই স্বাভাবিক যে পুনরায় মহামারী হতেই পারে। তাই আমাদের প্রত্যেকের উচিত এখন থেকেই পরবর্তী বিপর্যয়ের জন্য সতর্কবার্তা মেনে চলা। আর ভালো ভাবে প্রস্তুত হয়ে যাওয়া। যাতে করে এবারকার চাইতে আরো ভালোভাবে পরিস্থিতির মোকাবেলা করা যায়।”

তাছাড়া এই ডিরেক্টর জেনারেল পৃথিবীর সমস্ত দেশ গুলিকে জনসাধারণের স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর উন্নয়নের কথা বলেন। বলেন যে অতি শীঘ্র সাধারণ জনগণের জন্য বরাদ্দ স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উন্নয়ন ঘটাতে হবে। তার কথা অনুসারে,”অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক এবং সামাজিকভাবে সুস্থিতি লাভ করার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ভিত্তি হলো জনসাস্থ্য। তাই, পরবর্তী প্রজন্ম তথা ভবিষ্যতকে সুস্থ এবং সুন্দর করে তোলার জন্য স্বাস্থ্য খাতে বাজেট বাড়ানোর চিন্তা ভাবনা করা উচিত।” তিনি পৃথিবীর সব দেশের কাছে জনস্বাস্থ্য খাতে বাজেট বাড়ানোর অনুরোধ করেছেন।

এই ডিরেক্টর জেনারেল অবশ্য আগস্ট মাসের প্রথম দিকেই একটি সতর্কবার্তা দিয়ে দিয়েছিলেন। তার কথা ছিল যে, কোন ব্যক্তি বা কোন দেশের কেউ গ্যারান্টি দিতে পারবে না যে দুর্যোগের অবসান ঘটে গিয়েছে। তাই হুট হাট করে স্বাভাবিক জীবনযাত্রার প্রচেষ্টা করা ঠিক হবে না। এতে করে আরও বড় বিপদের সম্ভাবনা রয়েছে। তিনি পরবর্তী মহামারী বা দুর্যোগের সঠিকভাবে মোকাবেলা করার জন্য এখন থেকেই বিশ্ববাসীকে প্রস্তুত হতে বলেছেন।