বিরাট কোহলির কোন গুণ দেখে তাকে জীবনসঙ্গী করেছিলেন অনুষ্কা শর্মা, রইলো সমস্ত তথ্য

অভিনেতা-অভিনেত্রীদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে চিরকালই কৌতুহল প্রকাশ করে এসেছে জনগন।তাদের ভালোবাসা থেকে শুরু করে তাদের ব্যক্তিগত দাম্পত্য কলহ, সবকিছুরই সাক্ষী থাকতে চায় জনগণ।অভিনেতা অভিনেত্রীরা ও নিজেদের ব্যক্তিগত জীবন তাদের অনুগামীদের সঙ্গে শেয়ার করেন (365 Reporter Bangla Viral Entertainment News : why Anushka Sharma choose Virat Kohli as her life partner)।

বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মার জুটিকে অভিনয় জগতের অভিনেতা-অভিনেত্রীদের জুটির মধ্যে সবচেয়ে প্রিয় জুটি বলে মনে করা হয়। আমরা সচরাচর দেখে এসেছি অভিনেত্রীরা একটু বেশি বয়সেই বৈবাহিক জীবনে প্রবেশ করেন সেখানে অনুষ্কা শর্মা মাত্র ২৯ বছর বয়সে নিজেকে বৈবাহিক জীবনের সাথে জড়িয়ে নেন, যেটি একজন অভিনেত্রীর ক্ষেত্রে অনেকটাই কম বয়স বলে মনে করা হয়।

তবে অভিনেত্রী কিন্তু একটু অন্যধরনের মতামত দিলেন ইন্টারভিউতে। সাম্প্রতিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়া একটি খবরের মধ্যে দিয়ে জানা যায় অনুষ্কা শর্মা বলেছেন ” আমার ব্যক্তিগত জীবনে কি চলছে না চলছে তা নিয়ে আমার ভক্তদের তেমন কোন মাথা ব্যথা নেই, আমি সিঙ্গেল আছি নাকি বৈবাহিক জীবনে প্রবেশ করছি সেটির প্রভাব আমার ভক্তদের ওপর পড়বে না। আমি জানি এটি অত্যন্ত কম বয়স একজন অভিনেত্রীর কাছে। আমি যে পবিত্র ভালোবাসার টানে বাঁধা পড়েছিলাম সেটি থেকে আমি বেরিয়ে আসতে চাই নি এমনকি আজ পর্যন্ত বিয়ের পরেও তার প্রভাব একটুও কমেনি। আমার বিশ্বাস ছিল আমি বৈবাহিক জীবনে প্রবেশ করলেও তার প্রভাব আমার ক্যারিয়ারে পড়বে না”।

এছাড়াও জানা গেছে তার স্বামী বিরাট কোহলির ব্যাপারে কিছু কথা বলতে গিয়ে অনুষ্কা ইমোশনাল হয়ে পড়ে। সে জানায়, “বিরাটের মত স্বামীকে পেয়ে আমি অত্যন্ত খুশি। বিরাটের মতো সৎ একজন মানুষকে পেয়ে আমি নিজেকে ভাগ্যবতী মনে করি। আমাদের এই পবিত্র ভালোবাসার বন্ধন কখনো ছিন্ন হবেনা এটি আমার বিশ্বাস”

ক্যারিয়ারের বিষয়ে কথা উঠলে অনুষ্কা শর্মা জানায় একটি পুরুষ মানুষ বৈবাহিক জীবনে প্রবেশ করার পর যেমন তার ক্যারিয়ারে কোনরূপ প্রভাব পড়ে না তেমনই একটি মেয়েও নির্ভয়েই বৈবাহিক জীবনে প্রবেশ করতে পারে, এতে তার ক্যারিয়ারে কোনো প্রভাব পড়ার আশঙ্কা নেই। তাই বৈবাহিক জীবনে প্রবেশ করার পরে তার কু প্রভাব পড়বে সে কথা কখনো ভাবতেই চায়নি অনুষ্কা।