সুশান্তের ট্যালেন্ট এজেন্সিকে দেওয়া 62 লাখ থেকে 22 লাখ টাকা ঝাড়েন রিয়া

সুশান্তের মৃত্যুর (After The Death Of Sushant Singh Rajput) পর ক্রমাগত একের পর এক ঘটনা উঠে আসছে। ইডি এই মামলাটির তদন্তভার গ্রহণ করে যখন সুশান্তের বাবা কে কে সিং বিহার পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করেন। জুলাই মাসে তারা টাকা-পয়সার তছরুপের ব্যাপারটিতে তদন্ত শুরু করে দেয়। বর্তমানে, এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট ফাঁস করে দিল যে, সুশান্ত সিং রাজপুত একটি ট্যালেন্ট এজেন্সিকে 62 লাখ টাকা দিয়েছিল। আর সেই এজেন্সি নাকি ওই টাকা থেকে 22 লাখ টাকা রিয়া চক্রবর্তী (Rhea Chakraborty) কে দিয়ে দেয়।

তো চলুন আসল ব্যাপারটা খোলসা করে বলি। ইডি মামলাটির সঠিক তদন্ত করার জন্য ক্রমাগত ফাঁকফোকর গুলো খুঁজে বেড়াচ্ছে। আর তারা সবচেয়ে আগে টাকা-পয়সা লেনদেনের ব্যাপারটি বেশি করে খতিয়ে দেখছে। সেখান থেকেই এই ব্যাপারটি ধরা পরল। ব্যাপারটা হল যে সুশান্ত একটি এজেন্সিকে 62 লাখ টাকা দিয়েছিল। আর সেই টাকা থেকে 22 লাখ টাকার রিয়ার একাউন্টে ট্রান্সফার হয়ে যায়।

এবারে পুরনো রিপোর্টে দেখা গেল যে, একটা কোম্পানির সঙ্গে সুশান্তের ২.০৫ কোটি টাকার চুক্তি হয়েছিল। কারণ অনেকগুলো এভেন্ট করার কথা ছিল আসাম থেকে তামিলনাড়ু পর্যন্ত। আর এই চুক্তি সম্পন্ন হওয়ার আগেই এত বড় একটা এমাউন্টের টাকা রিয়ার একাউন্টে ট্রান্সফার করে দেয়া হয়।ইডি ওই ট্যালেন্ট কোম্পানির সাথে দু’দিন পূর্বেই কথা বলেছে। আর এরপর থেকেই ব্যাপারটা খোলসা হয়ে যায়।


তো এই মুহূর্তে ইডি সুশান্তের বাড়ির কাজের লোক, রিয়া চক্রবর্তী, তার ভাই শোয়িক (Showik Chakraborty-Brother Of Rhea Chakraborty), অভিনেতার বোন নিতু সিং এবং অন্যান্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করে নিয়েছে। কারণ তারা ধারণা করছে যে টাকা-পয়সার লেনদেন এর ব্যাপারটি পুরোপুরি পরিষ্কার হলেই এই মামলাটি অনেকটা এগোনো যাবে