মাদক সংক্রান্ত জিজ্ঞাসাবাদে এনসিবির দপ্তরে দীপিকা, জেরার মুখে কেঁদে ফেললেন তিনি

পূর্বেই মাদক সংক্রান্ত জিজ্ঞাসাবাদের (drug chat investigation NCB) জন্য এনসিবির দপ্তরে হাজিরার সমন পাঠানো হয়েছিল দীপিকা পাড়ুকোনকে। শনিবার সেই অনুযায়ী এনসিবির নির্দিষ্ট করা জায়গায় জিজ্ঞাসাবাদের উদ্দেশ্যে পৌঁছান দীপিকা। জিজ্ঞাসাবাদে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে থাকার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন তিনি এবং তার ম্যানেজার করিশ্মা প্রকাশের কাছে মাদক সংক্রান্ত খোঁজে‌র কথা‌ও স্বীকার করে নেন।

তবে নিজের ড্রাগ নেওয়ার কোন কথা তিনি বলেননি। উল্লেখিত হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ যার চ্যাট ইতিমধ্যে এনসিবির প্রধান হাতিয়ার সেই গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন দীপিকা। সূত্রের খবর, জিজ্ঞাসাবাদ চলাকালীন তিনবার কান্নায় ভেঙে পড়েন বলিউড কুইন দীপিকা (365 reporter bangla entertainment news: actress Deepika Padukone starts to cry after starting of NCB investigation)। জিজ্ঞাসাবাদ চলাকালীন তার প্যানিক অ্যাটাক হয় বলে জানা গিয়েছে। এই আশঙ্কা করেই দীপিকা পাড়ুকোনের স্বামী রনভীর সিং (Ranveer SIngh) জিজ্ঞাসাবাদে অংশ নিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু এনসিবির তরফ থেকে তা খারিজ করে দেওয়া হয়।

actress Deepika Padukone is crying
অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোন কাঁদছেন (ফটো ক্রেডিটঃ ইউটিউব)

এনসিবির তরফে দীপিকাকে তার প্রাক্তন ম্যানেজার করিশ্মা প্রকাশের মোবাইল নম্বর শনাক্ত করতে বলা হয় এবং তাকে জিজ্ঞাসা করা হয় তিনি মাদক সংক্রান্ত খোঁজ নিয়েছিলেন কিনা। জিজ্ঞাসাবাদের বেশ কিছু সময় নীরব ছিলেন দীপিকা। দীপিকাকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় বলা হয় তিনি কোথা থেকে মাদক সংগ্রহ করতেন এবং মাদকের অর্থ কে প্রদান করতেন। তিনি ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য মাদক আনাতেন নাকি সেগুলি অন্য কারোর জন্য সেকথাও জিজ্ঞাসা করা হয় তাকে।

করিশ্মা প্রকাশ ও সুশান্তের প্রাক্তন ট্যালেন্ট ম্যানেজার জয়া সাহা (Jaya Saha, ex talent manager of Sushant SIngh Rajput) তিনি কতদিন চেনেন সে নিয়েও প্রশ্ন করা হয় তাকে। এনসিবির এখন মূল লক্ষ্য হলো বলিউড তারকাদের কে মাদক সরবরাহ করতেন সেই ব‍্যক্তি‌কে শনাক্ত করা। দীপিকা, শ্রদ্ধা কাপুর, সারা আলি খানের বক্তব্যে সন্তুষ্ট নয় এনসিবির আধিকারিকরা। দ্বিতীয়বার তাদের দপ্তরের ডেকে পাঠাতে পারেন বলে সূত্রের খবর। আজ দীপিকা পাড়ুকোন, কারিশ্মা প্রকাশ, সারা আলি খান ও শ্রদ্ধা কাপুরের বক্তব্য আদালতে পেশ করা হবে।