খাবার পাতে বেশি নুন খাচ্ছেন? জেনে নিন কি কি সমস্যা হতে পারে

রান্নার সময় স্বাদ বৃদ্ধি‌তে অন‍্যান‍্য মশলার মতো নুন বিশেষ প্রয়োজন। রান্নায় নুন বেশি হলে যেমন রান্নার স্বাদ নষ্ট হয়ে যায়। সেরকম অতিরিক্ত নুন শরীরের পক্ষে বেশ বিপজ্জনক (Eating Too Much Salt Is Dangerous To Health)। শরীরে সৃষ্টি হতে পারে নানা জটিলতা। জেনে নিন প্রতিদিন কতটা পরিমাণ নুন আপনি খেতে পারবেন (How Much Salt Is Necessary For Your Daily life) ?

নুনের উপকারিতা (Benefits Of Salt): নুন রান্নায় স্বাদ বাড়ানোর সাথে সাথে শরীরে বিশেষ কয়েকটি খনিজ‌লবনের পরিমাণ সঠিক রাখে। শিশু শরীরের বিকাশের ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা পালন করে নুন। চলুুুন জেনে নেই আমাদের শরীরে লবণের উপকারিতাগুলো।

★ নুন শুধুমাত্র খাবারের স্বাদ বাড়ানোর জন‍্য উপযোগী নয়, শরীরেরও কয়েকটি বিশেষ প্রয়োজন মেটায় নুন।

★ নুনের মধ্যে যে খনিজ লবণ থাকে তা শরীরে ইলেক্ট্রোলাইট হিসেবে কাজ করে।

★ স্নায়ুতন্ত্র, মাংসপেশি এবং শরীরে তরলের মাত্রা ঠিক রাখতে সাহায্য করে নুন।

★ নুনের মধ্যে রয়েছে সোডিয়াম। যার পরিমাণ কমে গেলে শরীরে অনেক রকম সমস্যা দেখা দিতে পারে। যেমন: ক্ষুদ্রান্ত, মাংসপেশির সমস্যা, পেটের গন্ডগোল, বমি বমি ভাব ও হার্ট ফেলিওর-এর মত অসুস্থতাও দেখা দিতে পারে।

★ এমনকি সোডিয়ামের অভাব মস্তিষ্কের ক্রিয়া-কলাপেও প্রভাব ফেলে।

★ বর্তমানে বাজারে বিভিন্ন রকমের নুন পাওয়া যায়। যেমন: টেবিল সল্ট, সি সল্ট, হিমালয়ান সল্ট। রান্নায় ব্যবহার এর জন্য মূলত টেবিল সল্ট ব্যবহার করা হয়। এই নুনে আয়োডিন থাকে। তবে পুষ্টির কথা মাথায় রেখে সি সল্ট এবং হিমালয় সল্ট ব্যবহার করা বেশি উপযোগী।

★ নুনের মধ্যে থাকা আয়োডিন শিশু‌র মস্তিষ্ক বিকাশে সাহায্য করে‌।

নুনের অপকারিতা (Side Effects Of Salt):

যেকোনো জিনিসের যেমন ভালো দিক রয়েছে সেরকমই অতিরিক্ত ব‍্যবহারে ক্ষতিকর দিক‌ও রয়েছে। সেরকম নুনের ক্ষতিকর প্রভাব‌গুলি জেনে নিন।

★ নুন বেশি খেলে রক্তচাপের সমস্যার সাথে সাথে হার্টের সমস্যাও বেড়ে যায়। তাই খাবারে নুন বুঝেশুনে ব্যবহার করা উচিত।

★ আবার অনেকে অসুস্থ হওয়ার ভয় খান না। আপনার শরীর অনুযায়ী কতটা নুন প্রয়োজন। সেই সম্বন্ধে আপনি চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে পারেন। যতক্ষণ না আপনাকে চিকিৎসক নুন খাওয়া বন্ধ করতে বলছেন বা পরিমাণে কমাতে বলছেন ততক্ষণ কোন সমস্যা নেই।

★ অত্যাধিক নুন খাওয়া শরীরের পক্ষে অস্বাস্থ্যকর হতে পারে।

★ বেশি নুন গ্রহণের ফলে অস্টিওপোরেসিস, কিডনির সমস্যা এবং হাইপ্রেসারের মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে।

★অতিরিক্ত রক্তচাপ বৃদ্ধি‌র থেকে দেখা দিতে পারে হার্টের সমস্যা।

★ তবে ইচ্ছে মত যে কোন পরিমাণ নুন খাওয়া ঠিক নয়। সব নুনেই রয়েছে সোডিয়াম। তাই সোডিয়ামের মাত্রা নিয়ে একটু সাবধান হওয়া জরুরী।

★ অনেকেরই প্রবণতা থাকে ভাতের পাতে নুন ছিটিয়ে খাওয়ার। কিন্তু এটি অত‍্যন্ত অস্বাস্থ্যকর। আলাদা করে মেশানো নুন হজম হতে সময় লাগে। ফলে পেটে সমস্যা দেখা দেয়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে প্রাপ্তবয়স্করা প্রতিদিন ৫ গ্রাম পর্যন্ত নুন খেতে পারে (According To WHO, Intake Of 5 gm Salt Is Allowable Daily)। দুই থেকে পনেরো বছর ছেলে মেয়েদের নুনের মাত্রা তাদের শারীরিক প্রয়োজনের উপর নির্ভর করে। তাই ছোট শিশুদের নুনের পরিমাণ বুঝে ব‍্যবহার করা উচিত।

নুন ছাড়া রান্না করা সম্ভব নয়। তবে শারীরিক সুস্থতা বজায় রাখার জন্য পরিমাণ মতো নুন গ্রহণ করাই উচিত নুন খাওয়ার বিশেষ কয়েকটি নিয়মমেনে চললে শরীরের সুস্থতা বজায় রাখা সম্ভব।