গ্রেপ্তার ধর্মা প্রোডাকশনের ম‍্যানেজার ক্ষিতীশ প্রসাদ ! ক্লিন চিট অনুভব চোপড়ার

সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput) মামলায় নাম ওঠা ধর্মা প্রোডাকশনের ম্যানেজার ক্ষিতীশ প্রসাদকে গ্রেপ্তার করলো নারকটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। শনিবার তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় এনসিবির পক্ষ থেকে। ক্ষিতীশ প্রসাদ‌কে জিজ্ঞাসাবাদ করেন নারকটিক্স কন্ট্রোল ব‍্যুরো‌র আধিকারিক সমীর ওয়াংখেড়ে। জিজ্ঞাসাবাদের পরেই ক্ষিতীশ প্রসাদকে গ্রেফতার করা হয় (365 Reporter Bangla Entertainment News: NCB arrests the manager of Dharma production named Kshitij Prasad)।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, নারকটিক্স কন্ট্রোল ব‍্যুরো‌র জিজ্ঞাসাবাদে ৫ জন বলিউড তারকা এবং ২ জন প্রযোজকের নাম উঠে এসেছে। এদিন ধর্মা প্রোডাকশনের আরো এক কর্মী অনুভব চোপড়াকে ক্লিনচিট দেওয়া হয়েছে এনসিবির তরফে (NCB gives clean chit to Anubhav Chopra)। শুক্রবারের পর শনিবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাকে।

Karan Johar become sad after watching his manager arrested
ক্ষিতীশ প্রসাদ (বামদিকে), করণ জোহর (ডানদিকে) (ফটো ক্রেডিট: গুগোল )

করণ জোহারের ধর্মা প্রোডাকশনের ম‍্যানেজার ক্ষিতীশ রবি প্রসাদের বাড়িতে তল্লাশি চালানো হয়। শুক্রবার সকালে এরপরই ক্ষিতীশ প্রসাদকে নিয়ে যাওয়া হয় এনসিভির দপ্তরে। সূত্রের খবর ক্ষিতীশ প্রসাদের বাড়ি থেকে গাঁজা ও মারিজুয়ানা উদ্ধার করা হয়েছে। এনসিবির দপ্তরে যাওয়ার সময় গাড়িতে ওঠার পর ক্যামেরা দেখে মুখ ঢাকতে দেখা যায় ক্ষিতীশ রবি প্রসাদকে।

ক্ষিতীশ রবি প্রসাদের সঙ্গে মাদক পাচারকারী ও মাদক কারবারীদের যোগসুত্র রয়েছে বলেও সূত্রের খবর। ২০১৯ সালে করণ জোহারের হাউস পার্টিতে বলি তারকাদের নেশায় আচ্ছন্ন থাকার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। সেই পাটির কথা নতুন করে খবরের শিরোনামে ওঠার পরেই করণ জোহর বিবৃতি জারি করেছেন। তার বাড়িতে সেই পার্টি নিয়ে যে অভিযোগ করা হচ্ছে তা মিথ্যে।

পাশাপাশি তিনি জানান, তিনি কখনো মাদক নেন নি। তিনি এও দাবি করেন ক্ষিতীশ প্রসাদ ও অনুভব চোপড়াকে ব্যক্তিগতভাবে তিনি চেনেন না। তিনি দাবি করেছেন অনুভব চোপড়া (Anubhav Chopra) ২০১১ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত ধর্মা প্রোডাকশনে কাজ করতেন। তারপর আর তিনি ধর্মা প্রোডাকশনের সঙ্গে কোন যোগাযোগ রাখেননি। আর কেউ ২০১৯ এর একটি প্রজেক্টের জন্য ক্ষিতীশ রবি প্রসাদকে নেওয়া হয়েছিল। এর চেয়ে বিস্তারিতভাবে কিছুই জানাননি করণ জোহার (Karan Johar)।