Sitalkuchi Violence: শীতলকুচি তে কেন্দ্রীয় বাহিনীর ছোড়া গুলিতে মৃত ৪, পুলিশ এবং বাহিনীর আলাদা বয়ান

শীতলকুচি তে চলা ঘটনায় চারজনের মৃত্যু নিয়ে তোলপাড় হয়ে গেছে রাজ্য রাজনীতি। একদিকে যেমন তৃণমূলের অভিযোগ, বিজেপির হয়ে কাজ করছে কেন্দ্রীয় বাহিনী উল্টোদিকে তেমনি বিজেপি বলছেন, “কেন্দ্রীয় বাহিনী নির্বাচন কমিশন ছাড়া অন্য কারো কথা শুনেনা ভোটের সময়। তৃণমূল নেত্রীর উস্কানির জেরে শীতলকুচি প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে।” (West Bengal Election 2021 News: Sitalkuchi incident two opposite statements from police and CISF army. 4 cttizens dead in Sitalkuchi due to the bullet fire from Central Force. #Sitalkuchi)

এবার এই ঘটনা নিয়ে বিবৃতি দিলেন কোচবিহারের পুলিশ সুপার দেবাশীষ ধর। তাদের দাবি অনুযায়ী, দুষ্কৃতীরা কেন্দ্রীয় বাহিনীর ওপর হামলা চালিয়েছিল। সেই হামলার ফলে আত্মরক্ষার জন্য বাহিনীকে গুলি চালাতে হয়। তবে কোন পরিস্থিতিতে বাহিনী গুলি চালিয়েছিল তার নিয়ে পুলিশ এবং সেনার রিপোর্টে রয়েছে পার্থক্য। (Sitalkuchi Violence incident)

শনিবার সাংবাদিক বৈঠক করে কোচবিহারের পুলিশ সুপার দেবাশীষ জানিয়েছেন, এক যুবক হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল। তাকে সাহায্য করতে এগিয়ে এসেছিল স্থানীয় কয়েকজন মানুষ। সেই সময়ে বাহিনীর কয়েকজন জোয়ান তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল। তখনই হঠাৎ করে গুজব ছড়ায় যে, সি আই এস এফ এর মারে অসুস্থ হয়ে পড়ে ওই যুবক। তারপরেই সেনাদের ঘিরে ধরে প্রায় ৩০০ এরও বেশী গ্রামবাসী। (Shitalkuchi Ghotona ki)

হঠাৎ করে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকা তে। অস্ত্র ছিনিয়ে নেবার চেষ্টা চালানো হয় ক্রমাগত। এমনকি ব্যালট ছিনতাইয়ের অবস্থাও তৈরি হয় সেই সময়। তখন কোনো উপায় না পেয়ে বাহিনীকে গুলি চালাতে হয়। ১৫ রাউন্ড গুলি চালানোর ফলে মৃত্যু হয়েছিল চারজনের।

এদিকে একই ঘটনা প্রসঙ্গে সিআইএসএফ দাবি করেছে যে, সকাল ন’টা নাগাদ শীতলকুচি ১২৬ নম্বর বুথের কাছে কয়েক জন দুষ্কৃতী ঘুরে বেড়াচ্ছিল। তারা বারবার ভোটারদের বাধা দিচ্ছিল। কেন্দ্রীয় বাহিনী স্থানীয় পুলিশকে দিয়ে তাদের সরিয়ে দেবার চেষ্টা চালাচ্ছিল। সে ধস্তাধস্তিতে একটি বাচ্চা পড়ে যায়। তারপরই জনতা ক্ষুব্দ হয়ে গাড়ি ভাঙ্গি সিআইএসএফদের। প্রায় এক ঘন্টা পর আরো কিছু জন ঘিরে ধরে জাওয়ানদের। তাদের সরাতে গিয়ে দুই রাউন্ড গুলি চালায় বাহিনী।

পুলিশ এবং বাহিনীর এই আলাদা আলাদা বয়ানে রীতিমতো আরো একবার ক্ষুব্দ হয়ে উঠেছে রাজ্য রাজনীতি সমস্ত মহল।

sitalkuchi incident two opposite statements from police and cisf army
Sitalkuchi Violence: শীতলকুচি ঘটনায় পুলিশ এবং বাহিনীর আলাদা বয়ান, ক্ষুব্দ রাজনৈতিক মহল