মেয়েদের বুকের দিকে তাকানো বন্ধ করুন, তাহলে আর ব্রা পড়বো না- বললেন স্বস্তিকা

বাংলার এক বিখ্যাত অভিনেত্রী হলেন স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। তিনি কোন কিছু রাখঢাক পছন্দ করেন না। যা বলেন সবকিছুই পরিষ্কার খোলাখুলি বলে ফেলেন। আর এই কারণে লোকজন তাকে বহুবার সমালোচনা করেছেন। লোকেরা তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের কটুক্তি করেছেন। কিন্তু এসব কিছুকে তিনি কখনোই পাত্তা দেননি। পুনরায় খবরের হেডলাইন এ উঠে এলেন স্বস্তিকা (Actress Swastika Mukherjee faces troll again)।

সম্প্রতি দিল বেচারা সিনেমাতে অভিনয় করেছিলেন স্বস্তিকা। এবার তাসের ঘর ছবিতে পুনরায় অভিনয় করতে চলেছেন স্বস্তিকা। আর এই ছবির পরিচালকের নাম হল সুদীপ্ত রায় (DIrector Of Tasher Ghawr- Sudipta Roy)। কিছুদিন আগে এই ছবিটির পোস্টার পাবলিশ করা হয়েছে। আর পোস্টটা দেখার পরেই সবার মনের মধ্যে বিতর্ক জমা হয়েছে। এই পোস্টে এক মোহময়ী রূপে রয়েছেন স্বস্তিকা। তিনি লাল শাড়ি ও নীল সাদা ছাপা মারা ব্লাউজ পড়েছেন। এরপর ছোট্ট টিপ পড়েছেন কপালে এবং দেখা যাচ্ছিল কালি পড়ে গিয়েছে চোখে। আর চুলের খোপা খোলা রেখে এক সাধারণ গৃহস্থ বাড়ির বউ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছেন স্বস্তিকা। এই সিনেমাতে তিনি সুজাতা চরিত্রে অভিনয় করছেন।

সবকিছু ঠিকঠাকই ছিল। কিন্তু লোকজনেরা উঁকি মেরে দেখে নিয়েছেন যে স্বস্তিকার ব্লাউজের ফাঁক থেকে কালো ব্রা’র স্ট্রাপ দেখা যাচ্ছে। আর সাধারণভাবে আপনারা হয়তো দেখে থাকবেন যে কোন গৃহবধূ যখন কাজ কর্মে ব্যস্ত থাকেন তখন এরকমটা হয়েই থাকে। আসলে এক্ষেত্রে গৃহবধূদের কোনো দোষ দেওয়া যায় না। তবে এটা দেখেই সামাজিক গণমাধ্যমে লোকজন হইচই শুরু করে দিয়েছে। পুনরায় স্বস্তিকা কে নিয়ে ট্রোল করা হচ্ছে।

কিন্তু অভিনেত্রীও ট্রোলারদের এক হাত নিয়ে নিয়েছেন। তিনি সোজাসাপ্টা বললেন,” উত্তর আমি দেবই। মেয়ে হয়েছি বলে সবকিছু ছেড়ে দেবো নাকি? আর এসবে কিবা হচ্ছে? লোকে খারাপ কিছু মন্তব্য করলে করুক না। কিন্তু সবার মাঝে সচেতনতা হওয়া দরকার। প্রত্যেকে জানে যে মেয়েরা অন্তর্বাস অর্থাৎ ব্রা পরে। আর না পড়লে রাস্তার লোকেরাই তো অবাক হয়ে তাকাবে। তাই বাধ্য হয়ে আমাদেরকে পড়তেই হবে। আর সমাজের বদলানো দরকার এই মুহূর্তে। লোকেদের উচিত মেয়েদের বুকের দিকে চোখ দেয়া বন্ধ করা। আর তাহলে আমাদেরকে অন্তর্বাস পরা লাগবেনা।”

এছাড়াও তিনি যোগ করেন,” হ্যাঁ, আমরা প্যান্টি পড়ি। যখন পিরিয়ড হয় তখন প্যাড নিয়ে থাকি। আর এর মধ্যে কোনো অস্বাভাবিকতা নেই। তাহলে লুকিয়ে কি লাভ ? আমার ইচ্ছে হলে আমি ব্রা দেখাবো। তারপর প্যাড লুকিয়ে লুকিয়ে কালো প্লাস্টিকে কিনতে যাবো না। সরকার সবার মধ্যে সচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যে কনডম ব্যবহার করার কথা বলে দিচ্ছেন। অথচ মানুষ কনডম কেনার সময় প্রচুর লুকোচুরি করে। লোকজনের উচিত সবদিকে খোলা মেলা হওয়া। আমি কোনো কিছুই লুকিয়ে চুরিয়ে করি না।

এই মুহূর্তে জানা গেল, সুদীপ্ত রায় পরিচালিত তাসের ঘর সিনেমাটি হইচই প্লাটফর্মে মুক্তি দেওয়া হবে। আর এটি রিলিজ হতে চলেছে সেপ্টেম্বর মাসের ৩ তারিখে (Tasher Ghawr Will Be Released On Hoichoi on 3rd September, 2020)। পরবর্তীকালে আরো একটি সিনেমাতে অভিনয়ে রাজি হয়েছেন তিনি। এই সিনেমাটির নাম শ্রীময়ী। আর পরিচালনার দায়িত্বে আছেন অর্জুন দত্ত। এই সিনেমাতে তার স্বামীর ভূমিকায় থাকবেন সোহম চক্রবর্তী।