দেখুন কি নিয়ে যুদ্ধ বেধে গেলো ইস্টবেঙ্গল আর মোহনবাগানের মধ্যে?

প্রিয় বন্ধুরা, ফুটবল মানেই বাঙ্গালীদের কাছে এক তুমুল আনন্দ আর উত্তেজনার বিষয়। আর কলকাতা তথা ভারতের মধ্যে ফুটবলের সব থেকে বিখ্যাত দুটি দল হলো ইস্টবেঙ্গল এবং মোহনবাগান (Two Legendary Football clubs are: East Bengal FC and Mohun Bagan AC )। এই দুই দল নিয়ে বাঙ্গালীদের মধ্যে প্রচন্ড হইচই উন্মাদনা লক্ষ্য করা যায়। আর সত্যি কথা বলতে আমরা বাঙালিরা এই ফুটবল খেলা দেখে ভীষণ আনন্দ পাই। তো চলুন জেনে নেই কি কারণে এই মুহূর্তে ইস্টবেঙ্গল এবং মোহনবাগান এর মধ্যে লড়াই শুরু হয়ে গেল (Why battle is starting between East Bengal and Mohun Bagan Football Club) ?

আমি এখন যে প্লেয়ারটির নাম বলবো আপনারা যারা ফুটবল খেলা দেখে থাকেন তাহলে তারা বুঝতে পারবেন। ভারতের ফুটবলে এক তারকা হলেন সন্দেশ ঝিঙ্গান। তাকে ইন্ডিয়ান ফুটবলের অন্যতম সেরা ডিফেন্ডার বলে অভিহিত করা হয় (Sandesh Jhingan- One Of the best Defender in India)। আরো স্বাভাবিকভাবেই সেরা ফুটবল দলগুলি তাকে পাওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে থাকবে। আর বাস্তবিক ক্ষেত্রে ঘটলোও তাই।

favourite defender sandesh Jhingan
সুবিখ্যাত ফুটবলার সন্দেশ ঝিঙ্গান (ক্রেডিট: গুগোল)

ইস্টবেঙ্গল এবং মোহনবাগান দুই দলই সেরা ডিফেন্ডারকে নিজেদের দলে নিতে চাইছেন। ফলে ব্যাপারটা নিয়ে এক লড়াই শুরু হয়ে গেল। তবে সন্দেশ ঝিঙ্গান এর লক্ষ্য আলাদা। তিনি এই মুহূর্তে চাইছেন বিদেশি কোন ক্লাবে যুক্ত হত। প্রসঙ্গত, এর আগের সিজনে আইএসএল খেলা আরম্ভ হওয়ার কয়েক সপ্তাহ পূর্বেই হাঁটুতে অপারেশন করা হয় সন্দেশ ঝিঙ্গান এর। আর তিনি সেই মুহূর্তে কেরালা ব্লাস্টার দলের সাথে চুক্তিবদ্ধ ছিলেন। কিন্তু দুঃখের ব্যাপার হলো যে ওই বিশেষ কারণে তিনি পুরো মরশুমজুড়ে ঘরে বসে ছিলেন। মূলত ইনজুরি হওয়ার কারণে তাকে বিশ্রাম নিতে হয়েছিল তখন।

তবে এই মুহূর্তে করোনার ফলে দীর্ঘদিন ধরে ভারতে লকডাউন চালু করা হয়েছিল। আর স্বাভাবিকভাবেই অন্যান্য খেলার মত ফুটবল খেলা ও বন্ধ ছিল। আর এই পুরো সময়টার ফায়দা তুললেন ডিফেন্ডার সন্দেশ । তিনি নিজের বাড়িতে কঠোরভাবে অনুশীলন চালিয়ে গিয়েছেন। তিনি নিয়মমাফিক ফিটনেস ট্রেনিং এ নিজেকে বন্দী করে ফেলেছিলেন। আর তাই তিনি ফলাফল হাতেনাতে পেলেন। এই মুহূর্তে তিনি খেলার জন্য পুরোপুরি পারফেক্ট।

ফলে এই বিখ্যাত প্লেয়ার কে নিজেদের দলে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য প্রথমে মরিয়া হয়ে লাগে মোহনবাগান দল। মোহনবাগান দলের কতৃপক্ষগণ কয়েক মাস পূর্বে তাকে প্রস্তাব দিয়েছিল। প্রসঙ্গত এই খেলোয়াড়টি সামান্য কয়েক দিন আগেই অর্জুন পুরস্কার লাভ করেছেন। অপরদিকে আইএসএল এর আরো অনেকগুলো ক্লাব এই খেলোয়াড় কে দলে নেওয়ার জন্য প্রস্তাব পেশ করেছিল। তবে সন্দেশ এখনো পর্যন্ত কোথায় যাবেন তা ঠিক করেননি।

তবে তার কথা থেকে একটা কথা পরিষ্কার হয়ে গেল। তার নিজের ইচ্ছা যে তিনি কলকাতায় খেলবেন (Mr. Jhingan wishes to play for any club in Kolkata)। তাই মোহনবাগান দল সন্দেশ কে নিজেদের দলে অন্তর্ভুক্ত করার ব্যাপারে বেশ আশাবাদী (East Bengal vs Mohun Bagan)।

তবে আসল ট্যুইস্ট আপনারা শুনতে পাবেন এবার। কয়েকদিন আগেই বিদেশি এক সংস্থা ইস্টবেঙ্গল দলে ইনভেস্ট করার কথা বলেছেন। আর সেই কথা পাকা হয়ে গিয়েছে। আর এরপরই ইস্টবেঙ্গল সন্দেশ কে প্রস্তাব দেয় যে তারা তাকে তাদের দলে খেলাতে প্রবলভাবে উৎসুক। তবে শেষ পর্যন্ত কোন দলে তিনি খেলবেন তা এখন সময়ই বলবে। তবে অবশ্যই আমরা বাঙালিরা তার খেলা দেখার জন্য ভীষণভাবে আগ্রহী হয়ে আছি।