ফ্রেন্ডশিপ উইথ গ্লাভস

নিউ নর্মাল জীবন যাপন (Normal Lifestyle)-এর সাথে সাথে এখন প্রয়োজনীয় অঙ্গ হয়ে উঠেছে গ্লাভস। কিন্তু এই গ্লাভস ব্যবহারের নির্দিষ্ট কিছু বিধি (How to Use Gloves Properly) রয়েছে।আর নিয়মমাফিক বিধি মেনে চললে সুস্থতা বজায় রাখার পাশাপাশি সৌন্দর্য‌ও বজায় রাখা সম্ভব। হাতের সুরক্ষা ও সৌন্দর্য রক্ষার্থে ফ্রেন্ডশিপ করে ফেলুন পছন্দসই গ্লাভসের সাথে (Friendship With Gloves)। ফ‍্যাশন মেনে সুরক্ষাকবচ (Shield) বেছে নেওয়ার আগে কয়েকটি কথা মাথায় রাখুন

সারাদিন নানা কাজের ফলে আমাদের হাতের ওপরে বেশ চাপ পড়ে। বাড়ির কিংবা বাইরে যে কোনো কাজেই হাতের ওপর নির্ভর করতে হয়। তারপরে উপরি পাওনা হিসেবে যোগ হয়েছে এই করোনা আতঙ্ক। বারবার হাত ধোয়া এবং স‍্যানিটাইজার ব্যবহারে হাতের ত্বকের ক্ষতি হচ্ছে। যার ফলে প্রয়োজন হাতের অতিরিক্ত যত্ন। তাই গ্লাভসকে সবসময়ের সঙ্গী করুন। এতে আপনার হাত অনেকটা সুরক্ষিত থাকবে।

কোথায় কেমন গ্লাভস ব‍্যবহার করবেন?

১.জলের কাজ করার জন‍্য গ্লাভস (Gloves For Water Work):
বাজার থেকে জিনিসপত্র কিনে আনার পর আনাজপাতি,মাছ, মাংস ইত্যাদি জীবাণুমুক্ত করাটাও এখন ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে পড়েছে। ফলে জল ঘাঁটাও বেশি হচ্ছে। এইসব কাজের জন্য রাখতে পারেন রাবারের গ্লাভস। এরফলে হাতের ত্বক জলের সংস্পর্শে সরাসরি আসবে না। সব কাজ শেষের পর গ্লাভস খুলে হাত ধুয়ে নিলেই যথেষ্ট।

২.বাথরুম পরিষ্কার করার সময় গ্লাভস (Gloves For Cleaning Bathroom) :
বাথরুম পরিষ্কার করার সময় ডিসপোজেবল গ্লাভস (Disposable Gloves) ব্যবহার করা যেতে পারে। এই ধরনের গ্লাভস একবার ব্যবহারের পর দ্বিতীয় বার ব্যবহার করা যায় না।

৩.রাস্তাঘাটে বেরোবার সময় গ্লাভস (Gloves For Using Outside):
রাস্তাঘাটে বেরোনোর সময় বর্তমানে অনেকেই গ্লাভস ব্যবহার করছেন। সেক্ষেত্রে কৃত্তিম চামড়ার গ্লাভস পড়তে পারেন। এটি বেশ ফ্যাশনেবল এবং বাড়ি ফিরে সাবান জলে ধুয়ে স‍্যানিটাইজ করে নিতে পারেন।

৪.ফ্রেবিকের গ্লাভস (Fabric Gloves):
ফেব্রিকের গ্লাভস খুব কম সময়ের জন্য ব্যবহার করা যায়। কম সময়ের জন্য বাইরে গেলে এই গ্লাভস পড়তে পারেন। অনেকে আঙ্গুল বের করে রাখা গ্লাভস পড়েন। তবে করোনা পরিস্থিতিতে এই গ্লাভস ব্যবহার যোগ্য নয়।

কিভাবে গ্লাভস ব্যবহার করবেন ?

★ অনেকেই গ্লাভস পরে রাস্তায় বের হন অথচ বাড়ির বাইরে বেরিয়ে গ্লাভস খোলা-পরা করেন কিন্তু এটি উচিত নয়।
★ যতক্ষণ বাড়ির বাইরে থাকবেন ততক্ষণ গ্লাভস পড়েই থাকুন। বাড়ি থেকে বেরোনোর পর অফিসে গিয়ে যদি আপনি গ্লাভস খুলে রাখতে চান। সেক্ষেত্রে ব্যাগে অন্য গ্লাভস রেখে দিন এবং ব্যবহৃত গ্লাভস সাবধানে রাখুন।
★ গ্লাভসের ওপর থেকেও স্যানিটাইজার (Sanitizer) ব্যবহার করতে পারেন।
★ গ্লাভস ব্যবহারের পর তা বাড়িতে ফিরে এসে সাবান জলে ধুয়ে শুকোতে দিন পরের দিন ব্যবহারের জন্য।
★ গ্লাভস পড়লেও বাড়ি ফিরে এসেই সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে নিতে হবে।
★ বারবার হাত ধোয়ার অভ‍্যাস বজায় রাখা প্রয়োজন।

মনে রাখুন :

★ গ্লাভস কি মেটেরিয়াল (Gloves Material) দিয়ে তৈরি তা কেনার আগে দেখে নিন।
★ যে গ্লাভস‌ই ব্যবহার করুন তা যেন বাইরে থেকে আসার পর সাবান জলে ধুয়ে শুকানো যায়।
★ দু-তিন জোড়া গ্লাভস রাখতে পারেন। কারণ প্রতিবার ব্যবহারের পর এই গ্লাভস স‍্যানিটাইজ করা প্রয়োজন।
★ বাড়িতে রান্নার কাজে, বাথরুমের কাজে, বাইরে বেরোনোর সময় প্রত্যেকটি আলাদা আলাদা কাজের জন্য আলাদা আলাদা গ্লাভস ব্যবহার করুন।
★ গ্লাভস পরবার আগে হাতে স‍্যানিটাইজার ব‍্যবহার করে পাউডার লাগিয়ে নিতে পারেন তার ফলে হাত বেশি ঘামবে না।

সাধারণত শীতকালে ঠান্ডার হাত থেকে রক্ষা পেতে গ্লাভস পরা হয় কিন্তু বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে মাস্কের পাশাপাশি গ্লাভসকেও আমাদের সর্বক্ষণের সঙ্গী করে তুলতে হবে।