চিকিৎসা করাতে এসে প্রীতমের সাহায্য পেলেন বাংলাদেশী ফুটবলার নাবিব

সম্প্রতি হাঁটুর চিকিৎসা করাতে এসেছিলেন বাংলাদেশের নাবিব নেওয়াজ। তিনি কলকাতায় এসেছিলেন চিকিৎসা করাতে। শনিবার কলকাতার একনামি হাসপাতালে অস্ত্রপচার হয়েছিল তার। বাংলাদেশী সেই ফুটবলারের চিকিৎসার বেশিরভাগ দায়িত্ব নিয়েছেন ভারতের জাতীয় দলের ডিফেন্ডার প্রীতম কোটাল। (365 Reporter Bangladesh News: Pritam Kotal helps Bangladeshi footballer Nabib to get medical treatment)

সচরাচর এমন খবর শুনতে পাওয়া যায় না। প্রতিবেশী দেশের ফুটবলারের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলো অন্য এক ফুটবলার, এটি সত্যি খুব আশ্চর্যের বিষয়। প্রিতমের আচরণে মুগ্ধ নাবিব বলেন যে, আমি কলকাতায় কাউকেই চিনিনা। শুরু থেকে প্রীতম আমার খেয়াল রেখে গেছে। যে দিন অস্ত্রোপচার হয় সেই দিন এবং তার পরের দিন আমার সাথে দেখা করে গেছে।

অন্যদিকে প্রীতম জানিয়েছেন যে, যে দেশের ফুটবলার ই হোক না কেন ও আগে একজন মানুষ। তাই একজন মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সময় অন্য কথা চিন্তা করার সময় থাকে না আমার কাছে। ১৩ ই এপ্রিল একা কলকাতায় আসে নবিব। আমি ওর সাথে যোগাযোগ করিয়ে দিয়ে ডাক্তারের। বাংলাদেশের আর একজন ফুটবলার রায়ানের সঙ্গে আমার যোগাযোগ রয়েছে। সেও খুব ভালো বন্ধু আমার।

অস্ত্রোপচার হয়ে গেলেও বাড়ি ফেরা নিয়ে ভীষণভাবে চিন্তিত নবিব। বুধবার তার বাড়ি ফেরার টিকিট কাটা রয়েছে। কিন্তু এই সময়ে কিভাবে তিনি দেশে ফিরবেন তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন তিনি। লকডাউন ভবিষ্যতে আরও বাড়বে এই আশঙ্কা করে নাবিব বলেছেন, দেশে কি করে ফিরব এই নিয়ে এখন খুবই চিন্তিত আমি।

তবে বাংলাদেশি এই ফুটবলারের দেশে ফেরার দায়িত্ব নিয়েছেন প্রীতম। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন যে, বুধবারে বাড়ি ফেরার কথা থাকলেও ঢাকায় লকডাউন থাকাতে ও এখন ফিরতে পারছে না। কিভাবে ওকে দেশে ফেরানো যায় তার জন্য চিন্তা ভাবনা করছি আমরা। কিছু না কিছু ব্যবস্থা ঠিক হয়ে যাবে।

pritam kotal helps bangladeshi footballer nabib to get medical treatment
চিকিৎসা করাতে এসে প্রীতমের সাহায্য পেলেন বাংলাদেশী ফুটবলার নাবিব