অত্যন্ত জঘন্য ! ঋণের টাকা উসুল করার জন্য অপহরণ করল এক নাবালককে

South Dinajpur : দিনের পর দিন ধর্ষণ, অপহরন, হত্যা ক্রমশ বেড়েই চলেছে। টাকার জন্য অপহরণের সংখ্যা আমাদের দেশে চরম শিখরে পৌঁছেছে এবং হিংসার কবলে পড়ে বলি হতে হচ্ছে অনেক শিশুদের। এই রকমেরই একটি অপহরণের ঘটনা আমাদের সকলের সামনে এলো। (Very disgusting! Some Kidnapped a minor to recover a loan in Kushmandi, South Dinajpur, West Bengal)

ঘটনাটি ঘটলো পশ্চিমবঙ্গে, তবে পুলিশের সাহায্যের জন্য ধরা পরল পুলিশের জালে।

ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুরে কুশমন্ডিতে। অপহৃত লোকের পিতা পেশায় একজন প্রিয় পোল্ট্রি ব্যবসায়ী। খবর সূত্রে জানা যায় যে, বাজারে থাকা কিছু লোকের থেকে ঋণ নিয়েছিলেন এবং সেগুলি সময় মত দিতে না পারায় ধেয়ে এলো তার পরিবারের ওপর ঝড়।

জানা গেল, তিনি নভেম্বর ঠিক রাত যখন দশটা, সেই সময় নাবালকের বাবা রাতের খাবার শেষ করে শুয়ে পড়েছিলেন এবং তখনই হঠাৎই করে তিনজন বাড়ির দরজা ধাক্কালে, দরজা খোলার পর তিনজন মিলে তাদের ওপর অস্ত্র নিয়ে চড়াও হয় এবং এরপর নাবালককে ধরে সেখান থেকে নিয়ে চলে যায়। এরপর মুক্তিপণ হিসাবে পোল্টি ব্যবসায়ীর কাছে চাওয়া হয় ৬ লক্ষ টাকা।

সেই ব্যবসায়ী সাথে সাথে সমস্ত ঘটনা কুশমুন্ডির পুলিশ থানাতে জানান এবং পুলিশ তদন্তে নামে। অপহরণকারীরা মুক্তিপণ নেওয়ার জায়গা বলেন, উত্তর দিনাজপুর রায়গঞ্জ নগরে ব্রিজের কাছে। সেখানে যখন মুক্তিপণ দেওয়ার এবং নেয়ার জন্য উভয়ই পৌঁছায় তখনই সেই তিনজনকে ধরে ফেলে পুলিশ। (Kushmandi Thana Police arrests the accused from Raiganj Nagar Bridge, North Dinajpur)

এরপর নাবালককে উদ্ধার করে পুলিশ। ছেলেকে ফিরে পেয়ে সে জড়িয়ে ধরে।

সেই পোলট্রি ব্যবসায়ী কে পুলিশ জিজ্ঞাসা করেন যে, তার কারোর উপর সন্দেহ আছে কিনা, তার উত্তরে তিনি জানান যে, এক ব্যবসায়ী আছে যার ওপর তার সন্দেহ রয়েছে যে, সে এমন কাজ করতে পারে।

Very disgusting! Kidnapped a minor to recover a loan
অত্যন্ত জঘন্য ! ঋণের টাকা উসুল করার জন্য অপহরণ করল এক নাবালককে