ঠাকুর ঘরে এই সমস্ত কাজ করলে আপনার জীবনে দুর্গতি নেমে আসা সুনিশ্চিত

প্রত্যেক হিন্দু ধর্মের মানুষের বাড়িতে আলাদা করে ঠাকুরের জন্য স্থান থাকে। বাড়িতে আলাদা করে ঘর না করতে পারলেও বাড়ির একটি করে আমরা আলাদা করে ঠাকুরের জন্য জায়গা করে রাখি। সেখানেই সারাদিনের মধ্যে কিছু সময় আমরা নিজেদের ঈশ্বরের প্রতি নিমজ্জিত করতে চাই। (365 Reporter Bangla Lifestyle and Mythology News : Dont do this in your Thakur Ghar – Hindu Mandir in Home)

তবে এই ঠাকুর ঘরের কিছু বিশেষ নিয়ম যদি আমরা পালন না করতে পারি, তাহলে আমরা ঈশ্বরের কৃপা দৃষ্টি থেকে বঞ্চিত থাকবো। তাই ভগবানের স্থান কিভাবে সাজাতে হবে, তার দিকে বিশেষভাবে খেয়াল রাখতে হবে আমাদের। সব সময় নজর দিতে হবে যাতে কোনো ভুল না হয়ে যায়।

১. প্রথমেই নজর রাখতে হবে, ঈশ্বরকে উদ্দেশ্য করে যে ভোগ দেওয়া হয়, তা যেন শুধুমাত্র আতপ চাল দিয়ে তৈরি করা হয়।

২. ঠাকুর ঘরে কখনো কোনো অপরিষ্কার ছবি অথবা পুরনো ক্যালেন্ডার রাখা উচিত নয়, যদি থেকে থাকে তার সঙ্গে সঙ্গে সরিয়ে ফেলা হোক।

৩. ঠাকুর ঘর কে সর্বদা সুগন্ধময় করে রাখার জন্য হালকা মিষ্টি ধুপ অথবা ফুল ব্যবহার করতে পারেন।

৪. যখন পুজোয় বসবে তখন খেয়াল রাখবেন যে,কখনোই যেন সিংহাসনের মুখোমুখি না বসে পড়েন। হালকা বাম দিকে অথবা ডান দিকে মুখ করে বসতে চেষ্টা করবেন।

৫. ঠাকুরকে সর্বদা সিংহাসন এর উপরে বসানোর চেষ্টা করবেন। কখনোই মাটিতে রাখা সমীচীন নয়।

৬. সময়ের অভাবে যদি বেশ কিছুদিনের প্রসাদ একসাথে কিনে ঠাকুর ঘরে রেখে দিতে হয়, তাহলে সেটা আজই বর্জন করুন। দিনের পর দিন যে প্রসাদ আপনি ঠাকুরের উদ্দেশ্যে দিতে চান, সেটি ব্যতীত বাকি অংশ অন্যত্র রেখে দিন।

৭. ঠাকুর পূজার জন্য ব্যবহৃত যে বাসন থাকে, তা কখনোই খাবারের জন্য ব্যবহার করবেন না। সবসময় তা ঠাকুর ঘরে রেখে দেবেন।

৮. প্রদীপ জ্বালানোর সময় মাথায় রাখবেন যাতে এমনভাবেই সেটা জ্বালাবেন, যাতে পূজা সম্পন্ন হওয়া অবদি সেটা জ্বলতে পারে।

Dont do this in your Thakur Ghar Hindu Mandir in Home
ঠাকুর ঘরে এই সমস্ত কাজ করলে আপনার জীবনে দুর্গতি নেমে আসা সুনিশ্চিত