ফুলে ফেঁপে উঠছে মহানন্দার জল, তলিয়ে গিয়েছে মালদহের একাংশ

সামনে আসতে চলেছে পুজো, এরইমধ্যে মালদার একাংশ বিপুল অনিশ্চয়তায় ভুগছেন। পুরাতন মালদা পৌরসভার (Malda Municipality) কিছুসংখ্যক ওয়ার্ড ও ইংরেজবাজার এখন মহানন্দার কবলে। মহানন্দা জল বন্দি করে দিল এই দুই পুরসভার বেশ কয়েক হাজার মানুষকে। চলতি বছরে এই নিয়ে দুই বার জলবন্দি হওয়ার খবর পাওয়া গেল। দিন দিন ফুলেফেঁপে উঠছে মহানন্দা, জল হুহু করে বেড়ে চলেছে (365 Reporter Malda News: The water of Mahananda is overflowing, part of Malda has been submerged)।

বিগত ৩ মাস আগেও হঠাৎ করে মহানন্দার জলস্তর বেড়ে যাওয়ায় বিপুল ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়েছিল মালদাকে। যদিও সেই সময়টি বর্ষাকাল ছিল তাই নদীর জলস্তর বেড়ে ওঠা অস্বাভাবিক কিছু নয় তবুও সেই সময় অসংখ্য ক্ষতিগ্রস্ত গৃহহীন মানুষের একমাত্র আশ্রয়স্থল ছিল কিছু ত্রাণ শিবির। অবশেষে নদীর জল স্তর কমে যাওয়ার পর মানুষজন ফিরে আসেন নিজ নিজ বাসায়। পরবর্তী কয়েক মাস বেশ ভালোই কেটেছে তেমন কোন বিপদের সম্মুখীন হতে হয় নি। ইতিমধ্যেই গত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আবার সেই মহানন্দার কবলে পড়তে হলো মালদার একাংশকে।

মালদার অন্তর্গত ২টি পুরাতন শহর, ইংরেজবাজার এবং পুরাতন মালদা মহানন্দা নদীর তীরেই অবস্থিত। তাই মহানন্দার জলস্তর বৃদ্ধি পেলে বিপুল ক্ষতির মুখে পড়তে হয় এই দুই পুরাতন শহরকে এবং শহরের জনগণকে (Two old city of Malda named English Bazar and Puraton Malda are in the banks of Mahananda Nadi)। সেচ দপ্তর জানিয়েছেন প্রায় ২৩ সেন্টিমিটার বেড়ে গেছে মহানন্দার জলস্তর বিগত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে (High rise of water in Mahananda River, Malda)। তার ফলে জলের তলায় ভেসে গেছে ইংরেজবাজার সহ পার্শ্ববর্তী কিছু ওয়ার্ড এর বেশ কিছু এলাকা যে গুলির অধীনে আছে ৮নং, ৯নং এবং ১২নং ওয়ার্ড। পুজোর মুখে মহানন্দার জলস্তর হুহু করে বেড়ে যাওয়ার কারণ হচ্ছে উত্তরবঙ্গের ভারী বৃষ্টি।

Malda ingraj bazar ekhon mahanandar kobole
মালদার ইংরেজবাজার এখন মহানন্দার কবলে (ফটো ক্রেডিটঃ ইউটিউব)

ইতিমধ্যে ২০০ -এরও বেশি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। কিছু সংখ্যক প্রাথমিক স্কুল ত্রাণ শিবির হিসাবে খুলে দেওয়ার জন্য সেখানেই আশ্রয় নিতে হয়েছে সেই সকল পরিবারের মানুষকে। পুরাতন মালদা পুরসভার প্রশাসক কার্তিক ঘোষ ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর এবং সবরকম সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।